SCORE

জানুয়ারিতে হচ্ছে তো বিপিএল?

জাতীয় নির্বাচনের কারণে এই মৌসুমের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ পিছিয়েছে আয়োজক বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। যে আসর সাধারণত নভেম্বরের দিকে মাঠে গড়ায়, এবার সেটি শুরু হওয়ার কথা জানুয়ারিতে, অর্থাৎ আগামী বছরের শুরুতে। কিন্তু জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রস্তাবিত সময়েও বিপিএল আয়োজন করা নিয়ে দেখা দিয়েছে শঙ্কা।

৫ জানুয়ারি থেকে বিপিএল

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিনক্ষণ নির্ধারিত হয়নি এখনও। নির্বাচনকালীন সময় শেষে যেন নির্বিঘ্নে বিপিএল আয়োজন করা যায় এজন্য টুর্নামেন্টের গভর্নিং কাউন্সিল জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে ষষ্ঠ আসরের মাঠে গড়ানোর পরিকল্পনা করেছিল। কিন্তু এখন শোনা গেছে, নির্বাচন হতে পারে জানুয়ারিতেও। সেক্ষেত্রে বিপিএল কবে হবে, সেটি নিয়েই দেখা দিয়েছে শঙ্কা।

Also Read - সাদমানের শতক, আশরাফুলের '১' রানের আক্ষেপ

ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড সফরে ব্যস্ত থাকেবন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। ফলে জানুয়ারির প্রথম দিকে যদি নির্বাচন হয়, তাহলে জানুয়ারির শেষদিকে বিপিএল আয়োজনের সুযোগ নেই। নিউজিল্যান্ড সফর শেষ করে দেশে ফিরে আবার আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ, সফরকারী হিসেবে। ফলে বিপিএলের সম্ভাব্য সময় থেকে বাদ যাচ্ছে মার্চ ও এপ্রিলও। এর পরপরই বিশ্বকাপ। সেক্ষেত্রে এই মৌসুমে বিপিএল নাও হতে পারে।

এ প্রসঙ্গে বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘আমাদের সবার ধারণা যদি ডিসেম্বরে কোনো এক সময়ে নির্বাচন হয় তাহলে জানুয়ারিতে বিপিএল শুরু করতে পারবএখনো পর্যন্ত সেটাই জানি যে ডিসেম্বরে নির্বাচন হতে পারেসেটি হলে ৪ অথবা ৫ জানুয়ারি বিপিএল শুরু হবে এখনো পর্যন্ত সরকারি কোনো ঘোষণা হয়নি যে কবে নির্বাচন হবেযদি নির্বাচনের তারিখ পিছিয়ে যায় সে অনুযায়ী আমরাও বিপিএলে তারিখ ঘোষণা করব যদি নির্বাচন জানুয়ারিতে হয়, তখন কী করব এটা নিয়ে আপাতত কোনো পরিকল্পনা নেইআগের সূচি ধরে এগোচ্ছি আমরা।’

বিপিএলের সূচি পরিবর্তনের ক্ষেত্রে থাকছে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের বোঝাপড়ার বিষয়ও, সেটিও ভাবাচ্ছে বোর্ডকে। জালাল বলেন, ‘ফ্র্যাঞ্চাইজিরা আগের সময়কে সামনে রেখেই খেলোয়াড়দের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেচুক্তি করেছেকিন্তু জাতীয় স্বার্থ তো আমাদের মেনে নিতে হবেসেটি মেনেই বিপিএলের সঙ্গে সামঞ্জস্য করতে হবেযদি নির্বাচন জানুয়ারিতে হয়, তখন কী করব এটা নিয়ে আপাতত কোনো পরিকল্পনা নেইআগের সূচি ধরে এগোচ্ছি আমরা।’

এদিকে এতসব শঙ্কা-সংশয়ের মধ্যে বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছেন, নির্বাচনের কারণে পেছাবে না বিপিএলের আয়োজন। এমনকি নির্বাচনকালীন সময় আসরের সূচি পড়লেও থাকছে বিশেষ ব্যবস্থা।

তিনি বলেন,  ‘বিপিএল নির্ধারিত সময়সূচি অনুযায়ীই অনুষ্ঠিত হবে। এমনকি নির্বাচন পিছিয়ে ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারিতে গেলেও বিপিএল পেছানো হবে না। বিপিএল নির্বাচনের মধ্যে পড়ে গেলে, শুধু নির্বাচনের দিনটাতে খেলা বন্ধ থাকবে। কিন্তু বিপিএল পেছাবে না।’

আরও পড়ুন: আশরাফুলের সাবধানী শুরু

Related Articles

খুলনায় বিজয়-সৌম্যর ব্যাটে রান

জাবিদের দিনে ম্লান আশরাফুল

এনসিএলের পরই অবসর নিচ্ছেন রাজিন সালেহ

জয়-পরাজয় নির্ধারণে দু’টি ইনিংসই ডিক্লেয়ার!

রাজশাহী কিংসে ক্রিশ্চিয়ান জঙ্কার ও কাইস আহমেদ