Scores

জিম্বাবুয়ের সামনে রান পাহাড়, বাংলাদেশের চাই ৮ উইকেট

ঢাকা টেস্ট জয়ের জন্য ৪৪৩ রানের টার্গেটে চতুর্থ দিন শেষে ২ উইকেটে ৭৬ রান করেছে জিম্বাবুয়ে। শেষ দিনে স্বাগতিক বাংলাদেশের প্রয়োজন ৮ উইকেট অন্যদিকে জিম্বাবুয়ের দরকার ৩৬৭ রান। 

গতকাল টেস্টের তৃতীয় দিনে জিম্বাবুয়েকে ফলো-অনে ফেলে বাংলাদেশ। তবে জিম্বাবুয়ের প্রথম ইনিংসের সমাপ্তির পর দিনের খেলা শেষ হওয়ায় দ্বিতীয় ইনিংসের শুরু হয়নি। চতুর্থ দিনের বড় প্রশ্ন ছিল- জিম্বাবুয়েকে ফলো-অনে আবার ব্যাট করতে নামাবে বাংলাদেশ নাকি নিজেরাই নেমে লিড বড় করবে?

চতুর্থ দিনের সকালে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে বাংলাদেশ। তবে প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসের সূচনাতে আবারও ব্যাটিং ব্যর্থতা। ১০ রানে দুই ওপেনারের পাশাপাশি প্রথম ইনিংসে বড় শতক হাঁকানো মুমিনুলকেও হারায় টাইগাররা। এরপর বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি মুশফিকও। প্রথম ইনিংসে ডাবল শতক হাঁকানো মুশফিক দ্বিতীয় ইনিংসে আউট হয়েছেন মাত্র ৭ রানে। ২৫ রানে ৪ উইকেট হারানো বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং করা নিয়ে প্রশ্ন উঠে!

Also Read - রিয়াদের সেঞ্চুরি, টাইগারদের লিড ৪৪২


তবে অধিনায়ক রিয়াদ অভিষিক্ত মিঠুনকে সাথে নিয়ে প্রাথমিক বিপর্যয় ছাপিয়ে দলকে বড় লিডের দিকে নিয়ে যান। অভিষেক টেস্টের প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে আউট হলেও দ্বিতীয় ইনিংসে অর্ধশতকের দেখা পান মোহাম্মদ মিঠুন। পঞ্চম উইকেটে রিয়াদের সাথে গড়ে তোলেন ১১৮ রানের জুটি। দলীয় ১৪৩ রানের মাথায় বিগ শট খেলতে গিয়ে ৬৭ রানে আউট হোন মিঠুন। তবে অন্য প্রান্তে অবিচল ছিলেন রিয়াদ। ৭০ বলে তুলে নেন অর্ধশতক। টেস্টে ১০ ইনিংস পর অর্ধশতকের দেখা পান বাংলাদেশ বর্তমান টেস্ট অধিনায়ক।

এরপর দ্রুত আরিফুল হক বিদায় নিলেও মিরাজের সাথে জুটি গড়ে তোলেন রিয়াদ। পাশাপাশি দ্রুতগতিতে রান তোলেন। সপ্তম উইকেটে এই দুই ব্যাটসম্যান ৭৩ রান যোগ করেন। এর মাঝে টেস্ট ক্রিকেটে নিজের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। টি ব্রেকের আগের শেষ বলে সেঞ্চুরি পান রিয়াদ। আর সাথে সাথে ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ। ১২২ বলে ৪ চার আর ২ ছক্কায় ১০১ রান করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। অন্যপ্রান্তে মিরাজ অপরাজিত ছিলেন ২৭ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে ৫৪ ওভার ব্যাটিং করে ৬ উইকেট হারিয়ে ২২৪ রান করে বাংলাদেশ। টাইগারদের লিড দাঁড়ায় ৪৪২ রানের।

সিরিজ জিততে হলে ড্র করলেই কাজ হয়ে যাবে জিম্বাবুয়ের। সেই জন্য খেলতে হবে প্রায় ১২০ ওভার। চতুর্থ দিনের চা বিরতির পর ব্যাট করতে নেমে ধীরে শুরু করে জিম্বাবুয়ে। উদ্ভোধনী জুটিতে আসে ৬৮ রান। দুই ওপেনার-  হ্যামিলটন মাসাকাদজা ও ব্রায়ান চারি ২৩ ওভার ব্যাটিং করেন। জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক হ্যামিলটন মাসাকাদজাকে আউট করে টাইগারদের প্রথম ব্রেকথ্রো এনে দেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ১৬ বল পরে আরেক ওপেনার ব্রায়ান চারিকে ফেরান ফর্মে থাকা তাইজুল ইসলাম। দিনের বাকি সময় পার করেছেন ব্রেন্ডন টেলর ও শন উইলিয়ামসন।

শেষ দিনে জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ৮ উইকেট অন্যদিকে জিম্বাবুয়ের প্রয়োজন ৩৬৭ রানের।

 

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ
(চতুর্থ দিনের খেলা শেষে)

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস- ৫২২/৭, ডিক্লেয়ার্ড (১৬০ ওভার)

মুশফিক ২১৯*, মুমিনুল ১৬১, মিরাজ ৬৮*

জার্ভিস ৫/৭১, চাতারা ১/৩৪

জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংস- ৩০৪/১০ (১০৫.৩ ওভার)

টেলর ১১৩, মুর ৮৩, চারি ৫৩

তাইজুল ৫/১০৭, মিরাজ ৩/৬১

বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস- ২২৪/৬, ডিক্লেয়ার্ড (৫৪ ওভার)

রিয়াদ ১০১* ,মিঠুন ৬৭, মিরাজ ২৭*

জার্ভিস ২৭/২, টিরিপানো ৩১/২

টার্গেটঃ ৪৪৩ রান।

জিম্বাবুয়ে দ্বিতীয় ইনিংস-  ৭৬/২ (৩০ ওভার)
চারি ৪৩, মাসাকাদজা ২৫,
মিরাজ ১/১৬, তাইজুল ১/৩৪

টার্গেটঃ ৪৪৩

[আরও পড়ুনঃ উইন্ডিজের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচের দলে সাব্বির]

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটে আবারো ‘ঝড়ের হানা’

জিম্বাবুয়ে দলে ফিরলেন টেলর-মাসাকাদজা

ক্রিকেটের বিশ্বায়নে আইসিসির যুগান্তকারী পদক্ষেপ

‘পরামর্শক’ ক্রেমার লড়বেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই

দল থেকে ছিটকে গেলেন মাসাকাদজা ও টেইলর