টাইগাররা প্রটোকল মেনে চলায় খুশি নিউজিল্যান্ড সরকার

করোনাকালে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে কি বিপত্তিটাই না বাঁধিয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট দল। ৩৫ সদস্যের বিশাল বহর নিয়ে হইহই-রইরই করে চলেছে কোভিড প্রটোকল ভাঙার উৎসব। একপর্যায়ে নিউজিল্যান্ড সরকার সফরকারীদের দেশে ফেরত পাঠানোর হুমকিও দিয়ে বসে।

নিউজিল্যান্ডে দুইদিনের বন্দীদশার পর টাইগারদের স্বস্তির নিঃশ্বাস

Advertisment

তবে এমন কোনো দৃশ্যায়ন হচ্ছে না বাংলাদেশ দলের নিউজিল্যান্ড সফরে। বরং টাইগারদের করোনা প্রটোকল মেনে চলাতে বেশ খুশি নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট (এনজেডসি) ও দেশটির সরকার। করোনা মোকাবেলায় অনেকটাই সফল বলে কিউইদের দেশে গেলে মেনে চলতে হয় কঠোর নীতিমালা। বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা সুশৃঙ্খলভাবেই তা মেনে চলছেন।

এই সফরে দলের সাথে আছেন বিসিবি পরিচালক জালাল ইউনুস। সুদুর ক্রাইস্টচার্চ থেকে ভিডিও কনফারেন্সে তিনি বলেন, ‘সবাইকে সতর্ক করে দিয়েছি, কোনোক্রমেই যেন মাস্ক ছাড়া করিডোরে বের না হয়। এমনকি দরজার কাছ থেকে যে খাবার সংগ্রহ করে, সে সময়ও যাতে মাস্ক পরা থাকে। সবাইকে বারবার সতর্ক করা হচ্ছে।’

‘ম্যানেজার সাব্বির সবাইকে বলেছে। সবাই প্রটোকল মেনেও চলছে। আজ সকালে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট ও সরকারের সাথে সাব্বিরদের মিটিং ছিল। বাংলাদেশ প্রটোকল না ভাঙায় তারা খুশি।’

তবে বন্দীদশার মত এমন ভিন্নধর্মী অভিজ্ঞতা এবারই প্রথম দলের জন্য। জালাল ইউনুসের জন্যও এমন অভিজ্ঞতা নতুন।

তিনি বলেন, ‘আমরা খুবই সচেতন। ছেলেরাও খুব সচেতন। সবাই জানে, বুঝতে পারছে। কোনো সন্দেহ নেই, ভিন্নধর্মী এক অভিজ্ঞতা। সবার কাছেই নতুন অভিজ্ঞতা। করোনার কারণে এখানে কোয়ারেন্টিনের নিয়মকানুন খুব কড়া। নিউজিল্যান্ড সরকার যেরকম প্রটোকল করে দিয়েছে আমরা তা মানার চেষ্টা করছি। তবে এটা খুবই কঠিন। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে- আমরা কখনো এ ধরনের পরিস্থিতিতে পড়িনি।’