টিকটক করার জন্য মেয়ে সাজতেও আপত্তি নেই ওয়ার্নারের

ফেসবুক, টুইটার, ইন্সটাগ্রামের মত সোশ্যাল মিডিয়ার তুলনায় অনেকটাই নতুন টিকটক। তবে খুব অল্প সময়েই জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে এই মিউজিক ভিডিও প্লাটফর্ম। টিকটককে কেউ কেউ দেখেন সময় কাটানোর মাধ্যম হিসেবে। কেউ বা আবার বিনোদনের খোরাক, কেউ টাকা উপার্জনের উপায় আবার কেউ একে মনে করেন সামাজিক ব্যাধি।

টিকটক করার জন্য মেয়ে সাজতেও আপত্তি নেই ওয়ার্নারের
টিকটকের কারণে প্রায়ই আলোচনায় আসেন ওয়ার্নার। ফাইল ছবি

তবে সবাই এ কথা নির্দ্বিধায় মানবেন, টিকটক না এলে ডেভিড ওয়ার্নারের মত ক্রিকেটারের অভিনব প্রতিভা ধরা পড়ত না। টিকটকে এই তারকা এতই মজেছেন যে, টিকটক ভিডিও করার জন্য প্রয়োজনে মেয়ে সাজতেও কোনো আপত্তি নেই! অবসর সময়ে টিকটক ভিডিও বানিয়ে সেগুলো পোস্ট করেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে। বিশেষ করে ইনস্টাগ্রামে গেলেই দেখা মেলে ওয়ার্নারের টিকটক ভিডিওর।

Advertisment

এ মুহূর্তে ওয়ার্নার ব্যস্ত আইপিএলে, যেখানে তিনি খেলছেন বাংলাদেশি ক্রিকেটার মুস্তাফিজুর রহমানের দল দিল্লী ক্যাপিটালসের হয়ে। খেলা আর অনুশীলনের ফাঁকে সুযোগ পেলেই টিকটক ভিডিও বানাচ্ছেন। রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে দিল্লীর সর্বশেষ ম্যাচের পর আইপিএলের সঞ্চালক ওয়ার্নারকে প্রশ্ন করেন, এরপর কোন গানের রিলে টিকটক ভিডিও বানাবেন।

জবাবে ওয়ার্নার বলেন, তামিল সিনেমা বিস্টের জনপ্রিয় গান জলি ও জিমখানা গানে তিনি ভিডিও তৈরি করতে চান। কিন্তু সেই রিলের জন্য তো একটি নারী চরিত্র প্রয়োজন। ওয়ার্নার অবাক করে দিয়ে জানান, প্রয়োজনে তিনি নিজেই নারী চরিত্রটি করবেন।

টিকটকে অতিষ্ঠ হয়ে ওয়ার্নারকে 'আনফলো' করলেন সাইফউদ্দিন
টিকটকে অতিষ্ঠ হয়ে ওয়ার্নারকে ‘আনফলো’ করেছিলেন সাইফউদ্দিন। ফাইল ছবি

সেক্ষেত্রে ওয়ার্নার সঙ্গী হিসেবে বেছে নিতে চান দুই আইপিএল সতীর্থ কমলেশ নাগরকোটি ও খলিল আহমেদকে। তিনি বলেন, ‘ওরাই আমাকে বলেছে জলি ও জিমখানা গানের রিল তৈরি করতে। আমার এক জন মহিলার দরকার। ওদের একজনকে মহিলা সাজতে হবে। মহিলা সাজতে আমারও কোনো সমস্যা নেই।’

টিকটক ভিডিওর কারণে ওয়ার্নার বেশ কয়েকবার খবরের শিরোনাম হয়েছেন। বলিউডের জনপ্রিয়তা পাওয়া সিনেমাগুলো নিয়ে টিকটক করা তো তার অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। বিরাট কোহলি একবার রসিকতা করে বলেছিলেন, ওয়ার্নার নাকি তাকে টিকটক ভিডিও করার জন্য চাপে রাখেন। ওয়ার্নার আবার নিজেই একবার নিজেকে আইসিসির বর্ষসেরা টিকটকার বলে অভিহিত করেছিলেন!

আরও একটি মজার তথ্য আছে। ২০২১ সালের জানুয়ারিতে ওয়ার্নারের টিকটকে অতিষ্ঠ হয়ে ওয়ার্নারকে ইনস্টাগ্রামে আনফলো করেছিলেন বাংলাদেশি অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন!

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।