নাভিনের গতির সামনে কুপোকাত বার্বাডোজ

আফগান পেসার নাভিন উল হকের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টসের বিপক্ষে ৮ উইকেটের বড় জয় পেয়েছে গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্স। ৮টি করে ম্যাচ খেলে গায়ানার এটি চতুর্থ জয় এবং বার্বাডোজের ষষ্ঠ পরাজয়।

নাভিনের-গতির-সামনে-কুপোকাত-বার্বাডোজ

Advertisment

ত্রিনিদাদের ব্রায়ান লারা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নামাই যেন ভুল হয়েছিল বার্বাডোজের। ১ রানে প্রথম ও দ্বিতীয় উইকেট, ৩ রানে তৃতীয় উইকেট এবং ৯ রানে চতুর্থ উইকেট হারানো দলটি দলীয় ২৮ রানেই ৮ উইকেট হারিয়ে ফেলে। ভয়ানক বিপর্যয়ের শঙ্কা জাগলেও মিচেল স্যান্টনার দলকে সম্মানজনক সংগ্রহ এনে দেন।





নির্ধারিত ২০ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে বার্বাডোজের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৯২ রান। ২৭ বলে ৩৬ রান করে দলের মান বাঁচান স্যান্টনার। এছাড়া রশিদ খান ১৫ বলে ১৯, হায়ডেন ওয়ালশ ১২ বলে ১২ ও ওপেনার কাইল মায়ার্স ২২ বলে ১০ রান করেন।

গায়ানার পক্ষে নাভিন একাই শিকার করেন চারটি উইকেট। এছাড়া স্পিনার কেভিন সিনক্লেয়ার শিকার করেন দুটি উইকেট।






জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নামা গায়ানাও শুরুতে খেই হারিয়ে ফেলে। সিনক্লেয়ার ৩ ও শিমরন হেটমেয়ার ৯ রান করে বিদায় নেওয়ার পর দলের হাল ধরেন ওপেনার ব্রেন্ডন কিং ও আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান নিকোলাস পুরান। তাদের ৫৮ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি দলকে বড় জয় এনে দেয় ২০ বল হাতে রেখেই।

৪৯ বলের মোকাবেলায় ৪টি চার ও ২টি ছক্কায় ৫১ রান করে রাজার মতই অপরাজিত থাকেন কিং। ৩৩ বলে ১৮ রান করা পুরান এদিন একটি ধীরেসুস্থেই ব্যাট করেছেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস – ৯২/১০ (২০ ওভার)
স্যান্টনার ৩৬, রশিদ ১৯
নাভিন ১৪/৪, সিনক্লে‌য়ার ১৩/২

গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্স – ৯৩/২ (১৬.৪ ওভার)
কিং ৫১*, পুরান ১৮*
ওয়ালশ ৯/১, রশিদ ২১/১

ফল – গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্স ৮ উইকেটে জয়ী।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।