নাহিদুল-অলকের নৈপুণ্যে প্রাইম ব্যাংকের শ্বাসরুদ্ধকর জয়

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) সুপার লিগের খেলায় গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সকে ২ উইকেটে হারিয়েছে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। এই জয়ে শিরোপার লড়াইয়ে প্রাইম ব্যাংক টিকে থাকলেও গাজী গ্রুপ কার্যত ছিটকে পড়েছে। 

নাহিদুল-অলকের নৈপুণ্যে প্রাইম ব্যাংকের শ্বাসরুদ্ধকর জয়

Advertisment

মিরপুরে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি প্রাইম ব্যাংক। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে দলটির সংগ্রহ দাঁড়ায় ১২৫ রান।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৩ রান করেন শেখ মেহেদী হাসান। যদিও এদিন মারকুটে মেজাজ দেখা যায়নি তার ব্যাটিংয়ে। ৩৩ বল করতে মোকাবেলা করেছেন ৩১ বল। শেষদিকে আরিফুল হকের ২৮ বলে ৩১ রানের ইনিংসে দল পায় লড়াকু পুঁজি। এছাড়া ২২ বলে ২৪ রান করেন আকবর আলী।

প্রাইম ব্যাংকের পক্ষে বল হাতে অলক কাপালি ছিলেন দুর্দান্ত। মাত্র ১৬ রানের খরচায় তিনটি উইকেট শিকার করেন তিনি। এছাড়া দুটি উইকেট শিকার করেন শরিফুল ইসলাম।

নাহিদুল-অলকের নৈপুণ্যে প্রাইম ব্যাংকের শ্বাসরুদ্ধকর জয়

জয়ের সহজ লক্ষ্যে খেলতে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে ম্যাচ কঠিন করে তোলে প্রাইম ব্যাংক। একসময় গাজী গ্রুপের জয়কে সময়ের ব্যাপার মনে হলেও প্রতিরোধ গড়ে তোলেন নাহিদুল ইসলাম। এদিন বোলিং না করলেও অভিজ্ঞ এই অলরাউন্ডার শক্তি যেন জমা রেখেছিলেন ব্যাটিংয়ের জন্যই। সতীর্থদের ব্যাট না হাসলেও নাহিদুল এক প্রান্ত আগলে রেখে ২৫ বলে জড়ো করেন ৩৯ রান।

শেষপর্যন্ত নাহিদুলের ব্যাটিংই গড়ে দেয় ব্যবধান। বল হাতে উজ্জ্বল অলক ব্যাট হাতেও ছড়িয়েছেন দ্যুতি। ১৫ বলে ২১ রান করে ২ উইকেট ও ১ বল হাতে রেখে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন তিনি। এছাড়া রকিবুল হাসান ২১ বলে ২০ ও নাঈম হাসান ২১ বলে ১৬ রান করেন। গাজী গ্রুপের পক্ষে মুমিনুল হক, মেহেদী হাসান ও নাসুম আহমেদ শিকার করেন দুটি করে উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর 

টস : প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব

গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স : ১২৫/৯ (২০ ওভার)
শেখ মেহেদী ৩৩, আরিফু; ৩১, আকবর ২৪
অলক ১৬/৩, শরিফুল ৩৪/২

প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব : ১২৯/৮ (১৯.৫ ওভার)
নাহিদুল ৩৯, অলক ২১*, রকিবুল ২০
মেহেদী ১২/২, মুমিনুল ২১/২, নাসুম ২২/২

ফল  : প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব ২ উইকেটে জয়ী।