Scores

নিউজিল্যান্ডে নতুন করোনা রোগী শনাক্ত, ক্লোজ ডোরে ম্যাচ আয়োজন করবে বোর্ড

আগামী ৩ এবং ৫ মার্চ নিউজিল্যান্ড পুরুষ এবং মহিলা দলের ক্রিকেট ম্যাচগুলো ক্লোজ ডোরে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড।

করোনাভাইরাসের কারণে প্রথমে ক্লোজ ডোর অর্থাৎ শুন্য গ্যালারিতে ম্যাচ আয়োজন করে ক্রিকেট বোর্ডগুলো। ধীরে ধীরে মাঠে দর্শক ফেরানো শুরু করে বোর্ড। বিশেষ করে প্রথম দেশ হিসেবে করোনামুক্ত হওয়া নিউজিল্যান্ড নিজেদের ঘরের মাঠে আবারো দর্শক ফেরায়। সম্প্রতি সময়ে দেশটিতে নতুন করে ২০ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে।

Also Read - শেষ টেস্ট থেকে স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়ালেন বুমরাহ


গতকাল কোভিড টেস্ট করানোর পর ২০ জনের ফলাফল পজিটিভ আসে। এতে করে ক্ষুদ্ধ হয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী। নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ায় আগামী এক সপ্তাহের জন্য লেভেল-৩ সতর্কতা জারী করা হয়েছে অকল্যান্ডে এবং বাকি জায়গায় লেভেল-২ সতর্কতা জারী করেছে।

অকল্যান্ডে এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন দেওয়ায় বিপাকে পড়েছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। কেননা বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলছে নিউজিল্যান্ড অন্যদিকে ইংল্যান্ড নারী দলের সঙ্গে ওয়ানডে সিরিজ খেলছে হোয়াইট ফার্নস অর্থাৎ নিউজিল্যান্ড নারী দল।

সূচি অনুযায়ী আগামী ৩ মার্চ অকল্যান্ডে মাঠে নামার কথা অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড এবং ইংল্যান্ড-হোয়াইট ফার্নস। ম্যাচটির জন্য ইতোমধ্যে টিকেট বিক্রিও শেষ। তবে নতুন করে এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন দেওয়ায় অকল্যান্ড থেকে সরিয়ে ম্যাচগুলো নেওয়া হয়েছে ওয়েলিংটনে। তবে আগামী ৩ এবং ৫ মার্চের ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে ‘ক্লোজ ডোরে’।

তবে ৭ মার্চের ম্যাচটিতে মাঠে দর্শক ফেরানোর জন্য নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডকে অপেক্ষা করতে হবে দেশটির সরকারের নির্দেশনার জন্য। এদিকে ম্যাচগুলো ক্লোজ ডোরে আয়োজন করায় যারা টিকেট কিনেছেন তাঁদের রিফান্ড দেওয়ার ব্যবস্থা করছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড।

Related Articles

বাংলাদেশ সফরে আসবেন তো ওয়ার্নার-ম্যাক্সওয়েলরা?

রেকর্ড জুটি গড়ে ফিরলেন শান্ত-মুমিনুল

অনির্দিষ্টকালের জন্য ছিটকে গেলেন রাজা

মুমিনুলের সেঞ্চুরি, শান্তর দেড় শতাধিক রানে হাসছে বাংলাদেশ

রিজওয়ানের ব্যাটে জিম্বাবুয়ের জয় ঠেকাল পাকিস্তান