নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশ দলের স্পন্সর ‘ইভ্যালি’

আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশ দলের স্পন্সর হয়েছে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি। সোমবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এর সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন হয় ইভ্যালির।

২০১৯ বিশ্বকাপের পর থেকে স্থায়ী কোন স্পন্সর নেই বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে অনুষ্ঠিত হওয়া বিশ্বকাপ পর্যন্ত জাতীয় দলের স্পন্সর ছিল মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি ইউনিলিভার। এর পর থেকেই জাতীয় দলের জার্সিতে কখনো আকাশ কিংবা কখনো আবার স্পন্সর ছাড়াই মাঠে নেমেছে মুশফিকরা।

Also Read - করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শ্রীলঙ্কার তারকা পেসার


ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সর্বশেষ সিরিজে বেক্সিমকোর স্পন্সরকৃত জার্সি পড়ে খেলেছে টাইগাররা। তবে আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরে টাইগারদের স্পন্সর হয়েছে বাংলাদেশের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি। বিসিবির সঙ্গে ২ কোটি টাকার চুক্তি করেছে বাংলাদেশের এই সফল ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গে এই নতুন কাজ করছে না ইভ্যালি।

এর আগে বিপিএলে বিসিবির সঙ্গে যুক্ত হয়েছিল ইভ্যালি। এমনকি জাতীয় দলের কিট স্পন্সর হওয়ার আগেই বিসিবির সঙ্গে কাজ করেছে এই ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান। নতুন স্পন্সরের জার্সিতে সোমবার ফটোশুটও করেন নিউজিল্যান্ড সফরের জন্য ঘোষিত দলে থাকা ক্রিকেটাররা।

২০১৫ বিশ্বকাপের পর জাতীয় দলের স্পন্সর হয় মোবাইল অপারেটর কোম্পানি রবি। বিসিবির সঙ্গে ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত চুক্তি থাকলেও এর আগে জাতীয় দলের স্পন্সর থেকে সরে দাঁড়ায় এই মোবাইল অপারেটর কোম্পানিটি। তারপরই ২০১৮ সালে ইউনিলিভারের সঙ্গে চুক্তি করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

ইউনিলিভারের সঙ্গে ২০২০ সালের ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত চুক্তি থাকলেও ২০১৯ এ ভারতের বিপক্ষে সিরিজের পরই এই চুক্তি থেকে সরে দাঁড়ায় ইউনিলিভার।