নিশ্চিত হয়েছে বিপিএলের সাত আইকনের দল ও মূল্য

৩০ সেপ্টেম্বর বিপিএলের চতুর্থ আসরের খেলোয়াড়দের লটারী হবে। ইতিমধ্যে খেলোয়াড়দের ভিত্তি মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে খেলোয়াড় ড্রাফটের পূর্বেই নির্ধারণ হয়ে গেছে কোন আইকন ক্রিকেটার কে কোন দলে খেলবেন।

 

Advertisment

bpl icon

কিছুদিন আগে জানানো হয়েছিলো এবারের আসরে থাকবে না কোনো আইকন ক্রিকেটার, এর বদলে থাকবে ‘এ প্লাস’ ক্যাটাগরি। তবে এই পরিকল্পনা থেকে সরে এসে আবার আইকন ক্যাটাগরি রাখা হয়েছে। সাতটি দলের জন্য থাকছে আইকন শ্রেণির সাত ক্রিকেটার। এর এই সাত ক্রিকেটারকে ৩০ সেপ্টেম্বরের খেলোয়াড় ড্রাফটে রাখা হবে না। আইকন’রা পছন্দমতো দল বেছে নিতে পারবেন।

আইকনদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভিত্তি মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় স্টার সাকিব আল হাসানের (৫৫ লাখ টাকা)। এরপর একই রকম ভিত্তি মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে মাশরাফি বিন মর্তুজা (৫০ লাখ টাকা), মুশফিকুর রহিম (৫০ লাখ টাকা), তামিম ইকবাল (৫০ লাখ টাকা), মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের (৫০ লাখ টাকা)। আইকন খেলোয়াড়দের তালিকায় নিচের দিকে আছেন সাব্বির রহমান (৪০ লাখ) ও সৌম্য সরকার (৪০ লাখ)। অন্যদিকে এবার আইকন হিসেবে থাকছেন না নাসির হোসেন।এদিকে ইতিমধ্যে আইকনদের নিশ্চিত করে ফেলেছে দলগুলো।

আগের আসরে আইকন ক্রিকেটারদের ভিত্তি মূল্য ছিলো ৩৫ লাখ টাকা। এবারের আসরে আইকন আইকন খেলোয়াড়দের ভিত্তি মূল্য বাড়ানো হলেও অন্য ক্যাটাগরিতে তা কমানো হয়েছে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের এই আসরে ‘এ’ ক্যাটাগরিতে ১১ জন খেলোয়াড়কে রাখা হয়েছে। যাদের ভিত্তি মূল্য করা হয়েছে ২৫ লাখ টাকা (আগের আসরে যা ছিলো ২৮ লাখ টাকা)। ‘বি’ ক্যাটাগরিতে আছেন ৩৫ জন, তাদের ভিত্তি মূল্য ১৮ লাখ টাকা (আগের আসরে ছিলো ২২ লাখ টাকা)। ‘সি’ ক্যাটাগরিতে আছেন ৫২ জন, তাদের ভিত্তি মূল্য ১২ লাখ টাকা (আগের আসরে ছিল ১৫ লাখ টাকা)। ‘ডি’ ক্যাটাগরিতে আছেন ২৮ জন খেলোয়াড়, তাদের ভিত্তি মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে পাঁচ লাখ টাকা। তবে ‘ডি’ ক্যাটাগরিতে ভিত্তি মূল্যের পরিবর্তন হয় নি।

বিপিএলের চতুর্থ আসরের আইকনদের দলঃ 
সাকিব আল হাসান (ঢাকা ডাইনামাইটস)
মাশরাফি বিন মুর্তজা (কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স)
তামিম ইকবাল (চিটাগং ভাইকিংস)
মুশফিকুর রহিম (বরিশাল বুলসে)
মাহমুদউল্লাহ (খুলনা টাইটানসে)
সাব্বির রহমান (রাজশাহী) (নতুন মালিকানা পাওয়া রাজশাহীর নাম এখনো চূড়ান্ত হয় নি)
সৌম্য সরকার (রংপুর রাইডার্সে)

তবে অনেক ফ্র্যাঞ্চাইজি অভিযোগ করেছে, সাকিবকে ঢাকা নিশ্চিত করার পরেই আইকনদের উন্মুক্ত করে দিয়েছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। তাদের দাবী, ভিত্তি মূল্য (৫৫ লাখ) এর দ্বিগুণ মুল্যে সাকিবকে দলে ভিড়িয়েছে ঢাকা ডাইনামাইটস। সাথে দেয়া হচ্ছে একটি গাড়ি।

বিপিএলের আগের আসরে যে পাঁচ দল এবারের আসরেও আছে তারা গতবারের স্কোয়াড থেকে দুইজন খেলোয়াড়কে রেখে দিতে পারবে। এরিমাঝে পছন্দের দুই ক্রিকেটারের নাম বিপিএল টেকনিক্যাল কমিটির কাছে জমা দিয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। তবে এই সুবিধা পাচ্ছে না এবারের আসরে দুই নতুন দল খুলনা ও রাজশাহী। ৩০ সেপ্টেম্বরের লটারীতে রাখা হবে না এই ক্রিকেটারদের।

উল্লেখ্য, ৪ নভেম্বর শুরু হয়ে ডাবল লিগ পদ্ধতিতে চলবে এই টুর্নামেন্ট। ডিসেম্বরের ৭ বা ৮ তারিখ বিপিএল সমাপ্ত হবার কথা রয়েছে। এবারের আসর হবে ঢাকা ও চট্টগ্রামে।