Scores

পারটেক্সকে উড়িয়ে ১০ উইকেটে জিতল জয়-রকিবুলরা

বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ ২০১৯-২০ এর চলমান আসরে প্রথম ১০ উইকেটের জয়ের দেখা পেল ওল্ড ডিওএইচএস। ব্যাটে কিংবা বলে, কোনো বিভাগেই তাদের কাছে পাত্তা পায়নি পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাব।

সহজ লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে ওল্ড ডিওএইচএসের পক্ষে দারুণ শুরু করেন রাকিন আহমেদ ও আনিসুল ইসলাম ইমন। পাওয়ারপ্লের ৬ ওভারে তারা সংগ্রহ করেন ৪৭ রান। ১২তম ওভারে ডিওএইচএসের জয় নিশ্চিত করেন এই দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। ১১.৩ ওভারে ডিওএইচএস পায় ১০ উইকেটের বড় জয়।

Also Read - রকিবুল-শান্তদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বিবর্ণ পারটেক্স

আনিসুল ৩৩ বল ৩৩ রানে অপরাজিত থাকেন। তার ইনিংসে ছিল ২টি চার ও ১টি ছক্কা। রাকিন মাঠ ছাড়েন ৩৬ বলে ৪৩ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে। তার ইনিংসটি সাজানো ছিল ৬টি চারের সাহায্যে।

তার আগে টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে প্রথম ওভারেই হাসানুজ্জামানকে শিকার করেন আব্দুর রশিদ। মুসা আব্বাস ও তাসামুল হকের শ্লথ গতির ব্যাটিংয়ে শুরতেই থমকে যায় পারটেক্স। প্রথম ৬ ওভারে ১ উইকেটে ২৩ রান পায় দলটি।

আগের ম্যাচে দুর্দান্ত ফিফটি হাঁকানো মুসা দ্বিতীয় ম্যাচে সেই ফর্ম ধরে রাখতে ব্যর্থ হয়েছেন। সাজঘরে ফেরার আগে ২১ বলে করেন ১৭ রান। স্পিনার রকিবুল হাসানের শিকার হওয়ার আগে পারটেক্সের অধিনায়ক তাসামুল হক করেন ২৫ বলে ১৮ রান।

নাজমুল হোসেন মিলন খেলেন ২৩ বলে ১৭ রানের ধীরগতির ইনিংসে। শেষ দিকে ধীমান ঘোষের ২ চারে ১২ বলে অপরাজিত ১৭ রানে ভর করে নির্ধারিত ১৫ ওভারে ৭৭ রানের সংগ্রহ পায় পারটেক্স। তারা উইকেট হারিয়েছে ৪টি।

ওল্ড ডিওএইচএসের পক্ষে ২টি উইকেট শিকার করেন যুব বিশ্বকাপজয়ী স্পিনার রকিবুল। ৩ ওভারে মাত্র ৮ রান খরচ করেন ২টি উইকেট পান এই তরুণ ক্রিকেটার। এছাড়া ১টি করে উইকেট পেয়েছেন আব্দুর রশিদ ও মোহাম্মদ শান্ত।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাব ৭৭/৪ (১৫ ওভার)
তাসামুল ১৮, ধীমান ১৭*, মুসা ১৭, মিলন ১৭*;
রকিবুল ৩-০-৮-২, শান্ত ৩-০-১৬-১, রশিদ ৩-০-২৪-১;

ওল্ড ডিওএইচএস ৭৮/০ (১১.৩ ওভার)
রাকিন ৪৩*, আনিসুল ৩৩*;

ওল্ড ডিওএইচএস ১০ উইকেটে জয়ী।

Related Articles

জয়-ইমনদের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ডিওএইচএসের বড় সংগ্রহ

ব্রাদার্সের অবিশ্বাস্য জয়, শেষ বলকে ঘিরে বিতর্ক

রকিবুল-শান্তদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বিবর্ণ পারটেক্স

বিশ্বকাপজয়ীদের কাছে কুপোকাত সাব্বিররা