পূর্বাচল স্টেডিয়ামের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে বিসিবির কৃতজ্ঞতা

0
2728

নির্মাণের অপেক্ষায় থাকা পূর্বাচল স্টেডিয়ামের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

পূর্বাচল স্টেডিয়ামের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে বিসিবির কৃতজ্ঞতা

শনিবার (২ ফেব্রুয়ারি) বিসিবির বোর্ড সভায় আনুষ্ঠানিকভাবে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে হয়। এ সময় বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানান, পূর্বাচলে যে অত্যাধুনিক ক্রিকেট ভেন্যু নির্মিত হবে তার জায়গা ইতোমধ্যে বোর্ড বুঝে পেয়েছে।

Advertisment

তিনি বলেন-

স্টেডিয়াম করার জন্য ৩৭.৪৯ একর জমি আমরা পেয়েছিসেজন্য বোর্ড মিটিংয়ে সর্বপ্রথম আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছিওনার সহযোগিতা ছাড়া এই জায়গাটা পাওয়া কখনোই সম্ভব হতো না।’

পাপন আরও বলেন, ইতোমধ্যেই জায়গা আমাদের নামে হস্তান্তর হয়ে গেছেমাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এটা আমাদের ১০ লাখ টাকায় হস্তান্তর করা হয়েছে।’

জমি বুঝে পাওয়ার পর এবার ভেন্যুর ডিজাইনার ও পরামর্শক নিয়োগের জন্য শীঘ্রই আন্তর্জাতিক দরপত্র আহ্বান করা হবে। আগামী তিন বছরের মধ্যেই স্টেডিয়ামের নির্মাণকাজ শেষ করা হবে বলেও আশা প্রকাশ করা হয় সভায়।

নাজমুল হাসান পাপন বলেন, আমরা ঠিক করেছি পূর্বাচলের স্টেডিয়ামের জন্য এক্সপ্রেশন অব ইন্টারেস্ট চেয়ে আন্তর্জাতিকভাবে দরপত্র দিবসেটা মূলত স্টেডিয়ামের নকশা এবং কনসাল্টেন্সির জন্যতাদের নির্বাচন করার প্রক্রিয়া নিয়ে আলাপ করেছিবোর্ডের লোক তো থাকবেই, বাইরের থেকেও বিশেষজ্ঞ এই কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করব।’

প্রসঙ্গত, স্টেডিয়ামটির নামকরণ করা হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে।

ইতিপূর্বে দর্শক ধারণক্ষমতা ৯০ হাজার বলা হলেও বোর্ড সভা শেষে নির্দিষ্ট করে সংখ্যাটা উল্লেখ করেননি বোর্ড সভাপতি। তবে তিনি জানিয়েছেন, অন্ততপক্ষে ৫০ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতা থাকবে পূর্বাচলের শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। অত্যাধুনিক স্টেডিয়ামটিতে থাকবে পাঁচ তারকা হোটেল, সুইমিংপুল সহ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের সকল ধরনের সুবিধাদি। সুবিশাল ক্রিকেট কমপ্লেক্সের কারণে পূর্বাচল স্টেডিয়াম বিশ্বের অন্যতম সুন্দর ও অত্যাধুনিক স্টেডিয়াম হয়ে উঠবে বলে প্রত্যাশা ক্রিকেট বোর্ডের।