Scores

ফিরে দেখা: ১৯৯৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ

১৯৯৭ সালের ১৫ জুন আইসিসির ওয়ানডে স্ট্যাটাস পাওয়ার দুই বছর পরে ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো অংশগ্রহণ করে বাংলাদেশ।সেই আ সরে মোট ৫টি ম্যাচ খেলে ২টি জয় ও ৩টি হারের মুখ দেখে টাইগাররা। অভিষেক বিশ্বকাপেই সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তানকে হারিয়ে বড় চমক দেখিয়েছিল বাংলাদেশ।

১৯৯৯ বিশ্বকাপে যেমন ছিল বাংলাদেশের যাত্রা

টুর্নামেন্টের শুরুটা খুব একটা ভালো হয়েছিল না বাংলাদেশের। বিশ্বকাপে নিজেদের অভিষেক ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বড় হার মেনে নিতে হয়েছিল টাইগারদের। ৩৮ ওভার পর্যন্ত ব্যাটিং করে সবগুলো উইকেট হারিয়ে মাত্র ১১৬ রান সংগ্রহ করতে পেরেছিল বাংলাদেশ। ৬ উইকেটের সহজ জয় পেয়েছিল কিউইরা।

বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ডাবলিনে উইন্ডিজের মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। সেই ম্যাচে শেষ ওভারে যেয়ে ১৮২ রানে অলআউট হয়েছিল নবাগত দলটি। ৭ উইকেটের বড় জয় পেলেও সেটা সহজে পারেনি ক্যারিবিয়ানরা। এই লক্ষ্য তাড়া করতে উইন্ডিজকে ৪৭তম ওভার পর্যন্ত খেলতে বাধ্য করেছিল মোহাম্মদ রফিক, খালেদ মাহমুদ সুজনরা।

Also Read - বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন দেখছেন আতহার


তৃতীয় ম্যাচে এসেই বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম জয় তুলে নিয়েছিল বাংলাদেশ। এডিনবার্গে স্কটল্যান্ডকে ২২ রানে পরাজিত করে টাইগাররা। পুরো ৫০ ওভার ব্যাটিং করে ১৮৫ রান সংগ্রহ করে খালেদ মাসুদ, মিনহাজুল আবেদীনরা। জবাবে ১৬৩ রানেই অলআউট হয়ে যায় স্বাগতিকরা আর বিশ্বকাপে প্রথম জয়ের স্বাদ পায় বাংলাদেশ।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে বাজেভাবে হেরে যায় বাংলাদেশ। আগে ব্যাটিং করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৭৮ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। টাইগারদের বোলারদের নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলা করে মাত্র ২০ ওভারেই সেই লক্ষ্য টপকে যায় শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়া। বিশ্বকাপের ৭ম আসরে চ্যাম্পিয়নও হয়েছিল অজিরা।

১৯৯৯ বিশ্বকাপে নিজেদের শেষ ম্যাচে বড় চমক দেখায় বাংলাদেশ। ১৯৯২ এর চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তানকে ৬২ রানের বড় ব্যবধানে পরাজিত করে। এই ম্যাচেই প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে বাংলাদেশের স্কোর দুইশত পেরোয়। নর্দাম্পটনে আগে ব্যাটিং করে ৯ উইকেটের বিনিময়ে ২২৩ রান সংগ্রহ করে টাইগাররা। জবাবে ৪৫তম ওভারেই ১৬১ রানে অলআউট হয়ে যায় পাকিস্তান।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ওয়েডের ‘মাথার খুলি উড়িয়ে দিতে চেয়েছিল’ আর্চার!

একাধিক রেকর্ড দিয়ে অ্যাশেজ শেষ করলেন স্মিথ

সমতায় শেষ হলো অ্যাশেজ, ট্রফি গেল অস্ট্রেলিয়ায়

অস্ট্রেলিয়ার অধিকাংশ সমর্থকই আমাকে ঘৃণা করে: মার্শ

নেতৃত্বে ফিরবেন স্মিথ!