বার্ষিক চুক্তিকে ‘না’ বলে এক মাসের চুক্তিতে পাকিস্তানের পাঁচ তারকা

কেন্দ্রীয় চুক্তিতে জায়গা পাননি, কিন্তু এখনো আছেন জাতীয় দলের বিবেচনায়- পাকিস্তানের এমন পাঁচ তারকা ক্রিকেটার বোর্ডের বার্ষিক চুক্তিকে ‘না’ বলে বেছে নিয়েছেন মাসিক চুক্তিকে। খেলার সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে স্বাধীনতা পেতেই এমন অদ্ভুত কাণ্ড তাদের।

বার্ষিক চুক্তিকে 'না' বলে এক মাসের চুক্তিতে পাকিস্তানের পাঁচ তারকা
হাফিজ-মালিকের মত আমিরও ছিলেন না কেন্দ্রীয় চুক্তিতে। ফাইল ছবি

এই পাঁচ তারকা হলেন- মোহাম্মদ হাফিজ, শোয়েব মালিক, ওয়াহাব রিয়াজ, মোহাম্মদ আমির ও কামরান আকমল। তাদের কেউই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) কেন্দ্রীয় চুক্তিতে জায়গা পাননি।

Advertisment

হাফিজ ও মালিক জায়গা পাননি মূলত তাদের ক্যারিয়ার শেষদিকে থাকায়, যদিও টি-টোয়েন্টি দলে এখনো দুজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। কামরান ফর্মের কারণে এবং ওয়াহাব ও আমির টেস্টে অনাগ্রহের কারণে বোর্ডের রোষানলে পড়ে চুক্তিতে জায়গা হারান। তবে তাদেরকে ঘরোয়া ক্রিকেটের বার্ষিক চুক্তিতে জায়গা দিতে চেয়েছিল বোর্ড। পাঁচ ক্রিকেটারই সেই চুক্তিতে অনাগ্রহ জানিয়েছেন।

বার্ষিক চুক্তিকে 'না' বলে এক মাসের চুক্তিতে পাকিস্তানের পাঁচ তারকা
কামরান আকমল ও ওয়াহাব রিয়াজও বেছে নিয়েছেন এক মাসের চুক্তি। ফাইল ছবি

শেষপর্যন্ত তাদের এক মাসের চুক্তিতে অন্তর্ভুক্ত করেছে পিসিবি। ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি চ্যাম্পিয়নশিপের প্রাক্বালে তাদের এক মাসের ঘরোয়া চুক্তিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। অবশ্য এই চুক্তি না করলে ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিতে পারতেন না তারা।

বার্ষিক ঘরোয়া চুক্তিতে সিনিয়র ক্রিকেটারদের অনাগ্রহের কারণ খেলার বাধ্যবাধকতা। তাদের অনেকেই নিয়মিত বিশ্বজুড়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট খেলে বেড়ান। বোর্ডের বার্ষিক ঘরোয়া চুক্তিতে থাকলে পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটে অংশ নেওয়ার বাধ্যবাধকতা থাকবে। সেক্ষেত্রে বিদেশি লিগে অংশগ্রহণও পড়বে হুমকির মুখে। এ কারণেই বার্ষিক চুক্তি ফিরিয়ে দিয়ে হাফিজ-মালিকরা বেছে নিয়েছেন এক মাসের চুক্তি।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।