ব্যাটিং দৃঢ়তা দেখালেন জিয়া ও আফিফ

জাতীয় ক্রিকেট লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলায় খুলনা বিভাগ ও বরিশাল বিভাগের মধ্যকার ম্যাচ এগোচ্ছে ড্রয়ের পথে। খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে ম্যাচের তিন দিন ‘গত’ হলেও এখনও দেখা যায়নি দু’টি ইনিংসের ইতি।

৬ উইকেটে ১৯৯ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষ করা খুলনা বিভাগ বৃষ্টিবিঘ্নিত তৃতীয় দিনে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। সারাদিনে মাত্র একটি উইকেট হারিয়ে দলটি যোগ করেছে আরও ১৫০ রান। দলের পক্ষে শতক হাঁকিয়েছেন জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার জিয়াউর রহমান। ২৪৬ বলের মোকাবেলায় ১১২ রানে মাটি কামড়ানো এক ইনিংস উপহার দেন তিনি।

জিয়া ছাড়াও চওড়া ছিল আফিফ হোসেন ধ্রুবর ব্যাট। ধৈর্যের পরীক্ষা দিয়েছেন তিনিও। ১৩২ বলে ৮১ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে এখনও রয়েছেন অপরাজিত। চতুর্থ ও শেষ দিন ইনিংস ঘোষণা না করলে তার সাথে ব্যাট করার সুযোগ পাবেন আব্দুর রাজ্জাক, মেহেদী হাসান ও আল-আমিন হোসেন, আর আফিফ পাবেন ইনিংসকে বড় করার সুযোগ।

Also Read - জয়ের সম্ভাবনায় এগিয়ে পাকিস্তান

সপ্তম উইকেটে জিয়ার সাথে আফিফ গড়েন ১৫৫ রানের অনবদ্য এক জুটি। বৃষ্টি এসে খেলা থামিয়ে দেওয়ার আগে দিনের শেষ ওভারে জিয়া আউট হন। তাকে বোল্ড করে দিনে দলের পক্ষে একমাত্র উইকেটটি শিকার করেছেন বরিশালের মোসাদ্দেক হোসেন। ইনিংসে তার শিকার করা উইকেট সংখ্যা একটি। দুটি করে উইকেট শিকার করেছেন কামরুল ইসলাম রাব্বি ও সোহাগ গাজী।

এর আগে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ২৯৯ রানেই গুটিয়ে যায় বরিশাল বিভাগ। জবাবে ব্যাট করতে নেমে খুলনা লিডের নিয়ে থাকলেও এই ম্যাচে জয়-পরাজয় দেখার সম্ভাবনা খুব কমই।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (তৃতীয় দিন শেষে)

বরিশাল বিভাগ ১ম ইনিংস- ২৯৯; নুরুজ্জামান ৭৪, নাফিস ৪১; আল-আমিন ৬৭/৩, রাজ্জাক ১২১/৩

খুলনা বিভাগ ১ম ইনিংস- ৩৪৯/৭; জিয়া ১১২, আফিফ ৮১*, মিঠুন ৭২; রাব্বি ৪৪/২, গাজী ১০০/২

খুলনা বিভাগের লিড ৫০ রান।

আরও পড়ুন: বিমানকর্মীকে যৌন হয়রানি করেছেন রানাতুঙ্গা!

Related Articles

আফিফের ক্যারিয়ার সেরা বোলিং

শুরুতেই ‘এ’ দলের সাফল্য

দ্বিগুণেরও বেশি বাড়ল রাজ্জাকদের বেতন

২৭৪ রানে থামলেন লিটন

অভিষেকের অপেক্ষায় পাঁচ ক্রিকেটার!