ভারতের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে স্কোয়াডে বড় পরিবর্তন!

সাম্প্রতিক সময়ের মতোই ভারতের বিপক্ষে চলমান টেস্ট সিরিজটাও খুব একটা ভালো যাচ্ছে না অস্ট্রেলিয়ার। ইতোমধ্যে তারা সিরিজে ২-১ এ পিছিয়ে আছে। চতুর্থ ম্যাচটিতেও সুবিধাজনক অবস্থানে নেই স্বাগতিকরা।

চার ম্যাচ সিরিজের সিরিজের শেষ টেস্ট চলাকালীনই ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের জন্য ১৪ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়া দলকে নেতৃত্ব দিবেন অ্যারন ফিঞ্চ।

Advertisment

বেশ কয়েকটি পরিবর্তন নিয়ে ঘোষণা করা হয়েছে অজিদের স্কোয়াড। ওয়ানডে দলে ফিরেছেন পিটার সিডল, উসমান খাজা ও নাথান লিওন। আর আগের সিরিজ থেকে বাদ পড়েছেন ছয় জন- ক্রিস লিন, ডি’আর্চি শর্ট, ট্রেভিস হেড, বেন ম্যাকডরমট, অ্যাস্টন অ্যাগার ও নাথান কার্টার নেইল। এছাড়া মিচেল স্টার্ক, প্যাট কামিন্স ও জস হ্যাজলউডকে বিশ্রাম দেয়া হয়েছে।

পিটার সিডল এর আগে সর্বশেষ ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিলেন ২০১০ সালে। ৮ বছর পর দলে ফিরে রেকর্ড গড়তে যাচ্ছেন সিডল। অস্ট্রেলিয়ান কোনো ক্রিকেটারের ওয়ানডে ক্রিকেটে দুই ম্যাচের মধ্য এতো লম্বা বিরতি এই প্রথম। তাঁর দীর্ঘদিন পরে ফেরা সম্পর্কে অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাচক ট্রেভর হ্যানস বলেন, “২০১০ সালের পরে আবার পিটারকে ওয়ানডে দলে পেয়ে ভালো লাগছে। ক্রমান্বয়ে সে সাদা বলে দারুণ পারফরম্যান্স করছে।”

গত বছর ওয়ানডে ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়া মাত্র ২ টি ম্যাচ জিতেছিল। তাদের ব্যাটিং লাইন আপ আরো শক্তিশালী করার জন্যই আবার ডাকা হয়েছে মিচেল মার্শ ও পিটার হ্যান্ডসকম্বকে। মিচেল মার্শ সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছিলেন গত বছর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আর হ্যান্ডসকম্ব ২০১৭ সালে ভারতের বিপক্ষে।

অজি স্পিন বিভাগের দায়িত্বে রাখা হয়েছে নাথান লায়ন ও অ্যাডাম জাম্পাকে। নাথান লায়নকে বিশ্বের অন্যতম সেরা একজন স্পিনার হিসেবে উল্লেখ করছেন অজি প্রধান নির্বাচক ট্রেভর হ্যানস।

এক নজরে ভারতের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে দল:

অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), উসমান খাজা, শন মার্শ, পিটার হ্যান্ডসকম্ব, মার্কু স্টইনিস, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মিচেল মার্শ, অ্যালেক্স ক্যারি, রিচার্ডসন, বিলি স্ট্যানলেক, জেসন বেহরেন্ডর্ফ, পিটার সিডল, অ্যাডাম জাম্পা ও নাথান লায়ন।