‘ভারত আমাদের শত্রু নয়’, আফ্রিদিকে পাল্টা জবাব কানেরিয়ার

বাকযুদ্ধে লিপ্ত হয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক দুই ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি ও দানিশ কানেরিয়া। তাদের এই তর্কযুদ্ধ যেন থামবার নয়। অভিযোগ পাল্টা অভিযোগ আর যুক্তির রেশ টেনে আবারও আলোচনায় এই দুই ক্রিকেটার। এবার আফ্রিদিকে কড়া জবাব দিয়ে কানেরিয়া জানিয়েছেন, ভারত পাকিস্তানের শত্রু নয় বরং আফ্রিদিকেও তিনি পরোক্ষভাবে পাকিস্তানের শত্রু হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।

'ভারত আমাদের শত্রু নয়', আফ্রিদিকে কড়া জবাব কানেরিয়ার
বেশ কিছু দিন ধরে কথার যুদ্ধে লিপ্ত আফ্রিদি ও কানেরিয়া।

শহীদ আফ্রিদিকে নিয়ে গুরুতর কিছু অভিযোগ তোলে হইচই বাঁধিয়ে ফেলেছিলেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার দানিশ কানেরিয়া। স্বজনপ্রীতিমূলক আচরণের অভিযোগ তোলার পাশাপাশি কানেরিয়া দাবি করেছিলেন, আফ্রিদি নাকি তাকে জোর করে মুসলিম বানাতে চেয়েছিলেন।

Advertisment

ভারতীয় এক গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কানেরিয়া বলেছিলেন, ‘হ্যাঁ, আফ্রিদি মাঝেমধ্যেই আমাকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার কথা বলত। কিন্তু ওকে কখনই সিরিয়াসলি নিইনি আমি। আমি আমার ধর্মকে বিশ্বাস করি এবং এটা কখনওই ক্রিকেটের উপর নির্ভর করে না।’

কানেরিয়ার এমন মন্তব্যের পর মুখ খুলেছিলেন আফ্রিদি। আফ্রিদি বলেছিলেন, ‘যে মানুষটা এসব বলছে, তার চরিত্রের দিকে তাকান। কানেরিয়া আমার ছোট ভাইর মত ছিল। আমি ওর সাথে অনেক বছর খেলেছি। আমার আচরণ খারাপ হলে সে কেন তখন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে অভিযোগ করেনি, যাদের অধীনে আমি খেলতাম। সে আমাদের শত্রু দেশকে সাক্ষাৎকার দিয়ে যাচ্ছে, যেটা ধর্মীয় সংঘাত সৃষ্টি করতে পারে।’

আফ্রিদি যে ভারতকে শত্রু দেশ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন, তা মোটেও পছন্দ হয়নি পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার কানেরিয়ার। তিনি দাবি করেছেন, ভারত পাকিস্তানের শত্রু নয়, বরং ধর্ম দিয়া বিভাজন সৃষ্টিকারীরাই হলেন পাকিস্তানের শত্রু।

দানিশ কানেরিয়া। ফাইল ছবি

কানেরিয়া বলেন, ‘ভারত আমাদের শত্রু নয়, আমাদের শত্রু তারা যারা ধর্মের নামে মানুষকে বিভক্ত করে। ভারতকে যদি নিজের শত্রু মনে করে থাকো তাহলে কোনো ভারতীয় মিডিয়া চ্যানেলে আর কখনও যেও না।’

কানেরিয়া আবারও দাবি করেছেন, মুসলিম না হলে কানেরিয়ার ক্যারিয়ার শেষ করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন আফ্রিদি। তিনি বলেন, ‘আমি যখন ধর্মান্তরিতকরণের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছিলাম তখন আমায় হুমকি দেওয়া হয়েছিল যে আমার ক্যারিয়ার শেষ করে দেওয়া হবে।’

পাকিস্তানের ক্রিকেটে বেশ সমালোচিত এক চরিত্র দানিশ কানেরিয়া। যদিও কানেরিয়া দাবি করেছেন, তাকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ব্যাকফুটে ঠেলে রাখা হয়েছে। ৬১টি টেস্ট ও ১৮টি ওয়ানডে খেলা এই লেগ স্পিনার স্পট ফিক্সিংয়ের ভয়ংকর অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হয়ে নিষিদ্ধ হন। এখনও তিনি নিষেধাজ্ঞা ভোগ করছেন, তাই স্বীকৃত ক্রিকেটের কোনো কর্মকাণ্ডে অংশ নেওয়ার সুযোগ নেই তার। কানেরিয়া অবশ্য একাধিকবার তার নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার আকুতি জানিয়েছেন।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।