মানসিক ধকল কাটাতে সাকিবদের বিশ্রামের পক্ষে মেডিকেল টিম

করোনার কারণে ক্রিকেটারদের শারীরিক ধকলের পাশাপাশি বেড়েছে মানসিক ধকল। জৈব সুরক্ষা বলয় ও কোয়ারেন্টিনের ধাক্কায় খেলার আগে-পরে বড় সময় কাটাতে হচ্ছে বাইরের দুনিয়া থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে। আর এই বিষয়টি বিবেচনায় খেলোয়াড়দের বিশ্রামের পক্ষে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) মেডিকেল টিম। 

সাকিব-মুশফিকদের দেখে শেখেন মিরাজ

Advertisment

এ মাসের শেষদিকে জিম্বাবুয়ে সফরে যাবে বাংলাদেশ দল। আগামী মাসে স্বাগতিকদের বিপক্ষে তিন ফরম্যাটেই খেলবে টাইগাররা। যদিও জিম্বাবুয়ে সফরের আগে ক্রিকেটারদের থাকতে হচ্ছে টানা ক্রিকেটের মধ্যে। ক্রিকেট পাড়ায় গুঞ্জন রয়েছে, জিম্বাবুয়ে সফরে নির্দিষ্ট ফরম্যাটে বিশ্রাম নিতে চান সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিমের মত সিনিয়র ক্রিকেটাররা।

এ কারণেই জিম্বাবুয়ে সফর বা ভবিষ্যৎ সফরগুলোতে প্রয়োজন অনুযায়ী ক্রিকেটারদের বিশ্রাম দেওয়ার পক্ষে বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী। গণমাধ্যমের সাথে আলাপকালে তিনি জানান, ক্রিকেটাররা তাদের বিশ্রামের প্রয়োজনীয়তা বোর্ডকে অবহিত করলে বোর্ড তা বিবেচনা করবে।

দেবাশীষ বলেন, ‘যে ইনটেনসিটি ও ফ্রিকুয়েন্সিতে খেলা চলছে শারীরিক সমস্যার পাশাপাশি বাবল ফ্যাটিগেও অনেক খেলোয়াড় আক্রান্ত হচ্ছেন। শারীরিক ও মানসিক দুই দিক থেকেই আমাদের খেলোয়াড়রা ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। এ বিষয়ে বোর্ডের কাছে যে খেলোয়াড়রা সমস্যার কথা জানাচ্ছেন বোর্ড তাদের ব্যাপারে অবশ্যই চিন্তাভাবনা করছে।’

করোনা মহামারীর কারণে আরোপিত এই জৈব সুরক্ষা বলয়ের ইতি ঘটবে কবে, সেই প্রশ্নের উত্তর অজানা। দেবাশীষ তাই কঠিন এই বিষয়ের সাথে মানিয়ে নেওয়ার তাগিদ দিলেন ক্রিকেটারদের।

তিনি বলেন, ‘আমরা জানি না আগামী আরও কয় মাস বা কয় বছর আমাদের এভাবে বায়ো বাবল এনভায়রনমেন্টে চলতে হবে। এজন্য অবশ্যই আমরা বলব- খেলোয়াড়দের মানসিক প্রস্তুতি খুব গুরুত্বপূর্ণ। খেলোয়াড়দের একদিকে আমরা বলছি মানসিকভাবে পূর্বপ্রস্তুতি যেন আরও ভালো থাকে।’

‘একইসাথে কেউ যদি অভিযোগ জানায় বাবল ফ্যাটিগে আক্রান্ত হয়েছে বা বিশ্রামের প্রয়োজন করে বা ছুটি নিতে চায় সেটা বোর্ডের কাছে আবেদন করলে অবশ্যই বোর্ড বিবেচনা করবে।’– বলেন তিনি।