মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছেন আফিফ

0
584

অভিষেক ম্যাচে খেলতে নেমে ব্যর্থতায় দায়ে ছিটকে যান আফিফ হোসেন। এরপর দীর্ঘ ১৯ মাস বাদে আবার ফিরে পেয়েছেন জাতীয় দলের জার্সি। বাংলাদেশের হয়ে টি-টোয়েন্টিতে এখন নিয়মিত মুখ তিনি। কিন্তু উপরের দিকে ব্যাটিং করা আফিফের জায়গা মিলছে লোয়ার মির্ডল-অর্ডারে। তবে যেখানেই সুযোগ পান, মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছেন তিনি।

সুযোগ পেলে ব্যাট হাতেও অবদান রাখবেন আফিফ

Advertisment

২০১৮ সালে কুঁড়ি ওভারি ফরম্যাট দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা দিয়েছেন। ১ ম্যাচ খেলার পর দল থেকে বাদ পড়ে আবার কিছুদিন আগে ফিরেছেন ঘরের মাঠে ত্রিদেশীয় সিরিজে। সেখানে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৬ বলে ৫২ রানের মারকাটারি এক ইনিংস খেলে রীতিমত হিরো বনে গিয়েছিলেন আফিফ।

এরপর সুযোগ মেলে ভারতের বিপক্ষে সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি সিরিজে। যেখানে দুই ম্যাচে ব্যাট হাতে করেছে ৬ রান। তবে ৬-৭ নম্বরে ব্যাট করার ফলে নিজেকে মেলে ধরার তেমন সুযোগ অবশ্য পাননি তিনি। আজ মিরপুরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে আফিফ জানান, ‘যেখানেই আমাকে নামাবে আমি আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করবো। শেষ সিরিজটা ভালো যায়নি। এরপর যেখানেই সুযোগ পাবো আমি আমার বেস্টটা দেওয়ার চেষ্টা করবো।’

ঘরোয়া ক্রিকেটে টপ-অর্ডারে ব্যাট করলেও জাতীয় দলে বেশ নিচে খেলতে হয় এই অলরাউন্ডারকে। তবে দলের প্রয়োজনে যেখানে খেলতে হোক, মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করবেন তিনি। আফিফ বলেন ‘ইমার্জিং এশিয়া কাপে আমি পাঁচ নম্বরে ব্যাটিং করেছি। এইটা নিয়ে আমার বলার কিছু নেই। আর জাতীয় দলে যেখানে আমাকে মনে করবে যে আমি ভালো, সেখানেই আমি ভালো করার চেষ্টা করবো।’

‘টপ অর্ডারেতো অবশ্যই আমি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। কারণ ওখানে ব্যাটিং করলে আমার জন্য সহজ হয়। অনেক সময় নিয়ে ব্যাটিং করা যায়। তবে এনসিএল বা বিসিএল টেস্ট ফরম্যাট আর এগুলা টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট। এখানে যেই পজিশনে আমাকে ভালো মনে করছে যে এখানে ভালো করতে পারবো, সেই হিসেবেই সুযোগ দিচ্ছে।’ সাথে যোগ করেন তিনি।