মালিকের ব্যাটিং ঝড়ে সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ রাজশাহীর

0
463

চলতি বিপিএলে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ দলীয় স্কোর ছিলো ঢাকা প্লাটুনের। সিলেট থান্ডারের বিপক্ষে ১৮২ রানের সংগ্রহ পেয়েছিলো তারা। এবার ঢাকাকে টপকে সর্বোচ্চ রানের তালিকায় নাম তুললো রাজশাহী রয়্যালস। শোয়েব মালিকের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে ১৮৯ রানের পুঁজি পেয়েছে পদ্মা পাড়ের দলটি।

Advertisment

সাগরীকার কোল ঘেষে তৈরি জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস ভাগ্য কথা বলে খুলনার হয়ে। টসে জিতে প্রতিপক্ষকে আগে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।

পরে রাজশাহীর হয়ে ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে আসেন লিটন দাস ও হযরতউল্লাহ জাজাই। তবে খুব বেশি সুবিধা করতে পারেননি এই দুই ব্যাটসম্যান। দলীয় ৬ রানের মাথায় মোহাম্মদ আমিরের শিকার হয়ে ফিরেছেন জাজাই (১), ১৯ রানে থাকা লিটনকে আউট করেছেন রবি ফ্রাইলিঙ্ক।

এরপর রাজশাহীর হয়ে দলের হাল ধরেন আফিফ হোসেন এবং শোয়েব মালিক। তৃতীয় উইকেটে ৪০ রানের পার্টনারশিপ গড়েন দুজন। পরে ১৯ রান করে আফিফ আউট হয়ে গেলেও একপ্রান্ত আগলে রাখেন মালিক, লড়াই শুরু করেন রবি বোপারাকে নিয়ে। এরই এক ফাঁকে মাত্র ৩৫ বলে নিজের অর্ধশতকটা তুলে নেন ডানহাতি এ ব্যাটসম্যান। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে এটি মালিকের ৫৫তম ফিফটি।

পঞ্চাশ রানের কোটা পার করার পর আরো বেশি আগ্রাসী হয়ে যান পাকিস্তানি এই ক্রিকেটার। লেগ স্পিনার বিপ্লবের করা দলীয় ১৬তম ওভারেই ৩টা ছক্কা হাঁকান তিনি। কম যাননি বোপারাও, সমান তালে ব্যাট চালিয়েছেন তিনিও। তবে ইনিংসের শেষে দিকে এসে খানিক আক্ষেপ নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় মালিককে। সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ১৩ রান দূরে থাকতে আমিরের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন তিনি।

শেষদিকে ৫০ বলে মালিকের ৮৭ রানের সাথে ২৬ বলে বোপারার ৪০ রানের কল্যাণে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ১৮৯ রানের সংগ্রহ পায় রাজশাহী রয়্যালস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

রাজশাহী রয়্যালস: ১৮৯/৪ (২০ ওভার)
মালিক ৮৭, বোপারা ৪০*, লিটন ১৯; আমির ২/৩৬, ফ্রাইলিঙ্ক ১/২৯ শহিদুল ১/৩৫।