মাহমুদউল্লাহকে স্পন্সর পাইয়ে দিয়েছিলেন শচীন

0
1337

ক্রিকেট ইতিহাসের বড় একটা অংশ জুড়ে আছে ভারতীয় কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকারের নাম। বাইশ গজের ক্রিকেটের সেরা ক্রিকেটার কে? এমন প্রশ্নের সুরাহা করত গেলে দাঁড়িপাল্লার এক পাশে রাখতে হবে শচীনকে। সেই শচীনই বাংলাদেশি অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে স্পন্সর পাইয়ে দিয়েছিলেন।

রিয়াদের 'অপ্রিয়' যে বোলার, যে কোচকে আর চান না

Advertisment

বিশ্বজোড়া নাম তার। ক্রিকেটের যত রেকর্ড, ব্যাট হাতে তার সিংহভাগই করে দেখিয়েছেন শচীন। ২০০৮ সালে একবার বাংলাদেশ সফরে এসেছিল ভারতীয় ক্রিকেট দল। দলের অংশ হয়ে এসেছিলেন তিনিও। সেই সময় সদ্য অভিষেক হওয়া এক বাংলাদেশি ক্রিকেটারকে অ্যাডিডাসের মত স্পন্সর জোগাড় করে দেন শচীন।





সম্প্রতি ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকফ্রেঞ্জির সাথে সরাসরি ভিডিও আড্ডায় মুখোমুখি হয়েছিলেন টাইগারদের টি-টোয়েন্টি সংস্করণের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। সেখানেই ওই ঘটনার স্মৃতিচারণ করেন তিনি।

যেখানে মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘শচীনের সাথে খেলেছি ২০০৮ সালে। ঘরের মাঠে সিরিজ ছিল আমাদের। আমার অভিষেক হয়েছিল ২০০৭ সালের জুলাইয়ে। ঐ সিরিজটাতে আমি মোটামুটি ভালোই করেছিলাম।’






স্পন্সরের প্রস্তাব কীভাবে এসেছিল সেটিও জানান মাহমুদউল্লাহ, ‘একদিন আমি অনুশীলন থেকে বাসায় ফিরছিলাম। তখন গাড়িতে একজন আমাকে ফোন দেন। তখন অ্যাডিডাসের স্পন্সর ছিলেন সম্ভবত শচীন স্যার।’

‘যেহেতু আমি তরুণ ক্রিকেটার, তখন আমার কোনো স্পন্সর ছিলো না। উনি আমাকে বললেন যে, শচীন স্যার রেকমেন্ড করেছে আপনাকে স্পন্সরের জন্য।’- সাথে যোগ করেন তিনি।

শচীনকে ধন্যবাদ জানিয়ে টাইগার অলরাউন্ডার বলেন, ‘আসলে আমি জানতাম না আমার কী করা উচিৎ। তখন আমি তাকে ধন্যবাদ দেই। হয়তো সামনাসামনি কখনো বলা হয়নি। উনার খেলা দেখে বড় হয়েছি, উনার সঙ্গে খেলতে পারা সৌভাগ্য বলতে হয়। উনাকে সত্যিই অনেক ধন্যবাদ।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।