Scores

মুগ্ধর অগ্নিঝরা বোলিং; তুষার-জাকিরের শতক

বঙ্গবন্ধু জাতীয় ক্রিকেট লিগের প্রথম স্তরের এক ম্যাচে ঘরের মাঠে খুলনার বিপক্ষে আগুনে বোলিং করেছেন রংপুরের পেসার মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ। সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তুষার ইমরান। আরেক ম্যাচে টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন জাকির হাসান।

মুগ্ধর আগ্নিঝরা বোলিং; তুষার-জাকিরের শতক
মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ

রংপুর ক্রিকেট গার্ডেনে টস জিতে আগে ব্যাটিং করতে নামে খুলনা। ইনিংসের শুরু থেকেই মুগ্ধর পেস তোপে পড়ে দলটি। দলীয় ১৯ রানের মধ্যেই খুলনার ৩টি উইকেট শিকার করেন মুগ্ধ। প্রথম বলেই এলবিডব্লিউয়ের শিকার হয়ে গোল্ডেন ডাক নিয়ে ফেরেন ইমরুল কায়েস।

চতুর্থ উইকেটে ৭৪ রানের জুটি গড়েন তুষার ও নুরুল হাসান সোহান। সোহানকে শিকার করেন এই জুটি ভাঙেন নবীন ইসলাম। পঞ্চম উইকেটে ৬৩ রানের জুটি আসে নাহিদুল ইসলাম ও তুষারের ব্যাট থেকে। এই জুটি ভাঙেন আরিফুল হক। পরের দুইটি উইকেটও শিকার করেন নবীন ও আরিফুল।

Also Read - কনওয়ের ক্যাচ নিয়েই যত আক্ষেপ নাসুমের


সতীর্থদের আসা-যাওয়া দেখতে দেখতেই তিন অঙ্ক স্পর্শ করেন তুষার। আগের ম্যাচে ৯৯ রানে আউট হয়ে যাওয়ার আক্ষেপ কিছুটা হলেও হয়তো ঘুচেছে এই ম্যাচে সেঞ্চুরি করেন। ১১৬ রান করে তিনিও শিকার হন মুগ্ধর বলেই। তুষারের ১৩৬ বলের ইনিংসটিতে ছিল ২১টি চারের মার।

আব্দুল হালিম ও মিনহাজ রহমানকে শিকার করে খুলনাকে অলআউট করে দেন মুগ্ধ। এই ডানহাতি পেসার শিকার করেন মোট ৬টি উইকেট। খুলনা প্রথম ইনিংসে সংগ্রহ করেছে ২২১ রান।

ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতে উইকেট হারায় রংপুরও। গোল্ডেন ডাক নিয়ে সাজঘরে ফেরেন নবীন। ৬৩ রানের মধ্যে ৩টি উইকেট হারায় রংপুর। জাহিদ জাভেদ (৩২) ও সোহরাওয়ার্দী শুভকে (১৫) শিকার করেন যথাক্রমে হালিম ও জিয়াউর রহমান।

দিন শেষে রংপুরের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১০৩ রান। ক্রিজে অপরাজিত আছেন নাসির হোসেন (১৯) ও তানভীর হায়দার (২৯)।

প্রথম স্তরের আরেক ম্যাচে কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামের ২ নং মাঠে লড়ছে সিলেট ও ঢাকা। টস জিতে আগে ব্যাটিং করতে নামা সিলেট প্রথম দিনেই নিজেদের শক্ত অবস্থানে নিয়ে গিয়েছে। সুমন খান ও সালাহউদ্দিন শাকিলের বোলিং তোপে শানাজ আহমেদ (০), সায়েম আলম (০) ও অমিত হাসান (১৩) দ্রুত সাজঘরের পথ ধরেন।

মুগ্ধর আগ্নিঝরা বোলিং; তুষার-জাকিরের শতক
জাকির হাসান

৫০ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলা দলটির হাল ধরেন জাকির হাসান ও জাকের আলি অনিক। চতুর্থ উইকেটে তারা যোগ করেন ১৫৫ রান। ৬৭ রান করা অনিক আউট হন শুভাগত হোমের শিকারে পরিণত হয়ে। তিনি করেন ১৫৩ বলে ৬৭ রান।

আগের ম্যাচেও সেঞ্চুরি করা জাকির সেই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে এই ম্যাচে করেছেন ১৫৯ রান। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এটি তার সপ্তম সেঞ্চুরি। শুভাগতর দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হওয়ার আগে জাকির হাঁকান ১৭টি চার ও ২টি ছক্কা। এই ইনিংস খেলতে তিনি খরচ করেন ২২৮টি বল।

দিন শেষে সিলেটের সংগ্রহ ৯০ ওভারে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ২৮২ রান। ক্রিজে অপরাজিত আছেন আসাদুল্লা আল গালিব ও এনামুল হক জুনিয়র। ঢাকার পক্ষে শুভাগত ৩টি ও সুমন ২টি উইকেট নিয়েছেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

সিলেট ২৮২/৬ (৯০ ওভার, প্রথম ইনিংস)
জাকির ১৫৯, অনিক ৬৭, গালিব ২৪*;
শুভাগত ৩/৫৬।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

খুলনা ২২১/১০ (৪৯.২ ওভার, প্রথম ইনিংস)
তুষার ১১৬, সোহান ৩১;
মুগ্ধ ৬/৬৪।

রংপুর ১০৩/৩ (২৯ ওভার, প্রথম ইনিংস)
জাহিদ ৩২, তানভীর ২৯*, নাসির ১৯*;
টুটুল ১/২৪।

Related Articles

অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত জাতীয় লিগ

রংপুরকে ম্যাচ জিতিয়েই মাঠ ছাড়লেন নাসির

পাল্টাপাল্টি জবাবে ড্রয়ের পথে ঢাকা-সিলেট

মুগ্ধর পেস তোপে জয়ের সুবাস পাচ্ছে রংপুর

জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের ছাড়াই সমাপ্তির পথে এনসিএল