মুস্তাফিজের মাঝে মালিঙ্গার ছায়া দেখেন হার্শা ভোগলে

একজন নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। আরেকজনের কেবল পথচলা শুরু। কিন্তু ক্ষুদ্র এই সময়েই ভবিষ্যতের বিশ্ব শাসনের জ্বালানী পেয়ে গেছেন বাংলাদেশের বা হাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। টি-টোয়েন্টির সেরা বোলার লাসিথ মালিঙ্গার মাঝে মুস্তাফিজের ছায়া দেখতে পান আইপিএল থেকে উপেক্ষিত জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে।
 
স্টার স্পোর্টসের হয়ে বহু বছর ধরে ধারাভাষ্য দিয়ে আসছেন ভোগলে। কিন্তু এবার তাকে রাখেনি তারা। কিন্তু তাতে তেমন প্রভাব ফেলছে না তার গবেষণামূলক কথায়। সানরাইজার্স হায়দারাবাদের হয়ে প্রথম ম্যাচে বোলারদের মার খাওয়ার দিনে মুস্তাফিজ ছিলেন সবার থেকে আলাদা। মাত্র ২৬ রান দিয়ে নিয়েছিলেন এবি ডি ভিলিয়ার্স এবং শেন ওয়াটসনের মত ব্যাটসম্যানদের উইকেট। তার বল খেলতে রীতিমত ঘাম ঝড়াতে হয়েছিল বিরাট কোহলিকেও। মালিঙ্গা ক্রিকেটে যখন নতুন আসেন ঠিক এমন করে ব্যাটসম্যানদের সমস্যা করতেন তিনি। আস্তে আস্তে মালিঙ্গা হয়েছেন টি-টোয়েন্টি সেরা বোলার। কিন্তু মুস্তাফিজের মাত্র শুরু। তার ভেতরেই মালিঙ্গা হওয়ার সব উপাদান রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন হার্শা ভোগলে।
Harsha-Bhogle-600x338
 
‘মুস্তাফিজুর রহমানের ভেতর মালিঙ্গা হওয়ার সব রকম উপাদানই রয়েছে। প্রথমবারের মত মুস্তাফিজ দেশের বাইরে ভিন্ন সংস্কৃতির সাথে মিশতেছে। বিভিন্ন দেশের ক্রিকেটার সাথে খেলতেছে। এমনকি তার ভাষাও সেই ক্রিকেটাররা জানেনা।’
 
আইপিএলের সময়টাতে মুস্তাফিজের উপর বিশেষ নজর রাখবেন হার্শা ভোগলে। মূলত তার বোলিং অ্যাকশন পরিবর্তন না করে দুই রকম গতিতে বোলিং করাটা বেশ উপভোগ করছেন ভোগলে। ‘আগামী ছয় সপ্তাহ আমি কয়েকজন ক্রিকেটারকে তাদের পারফর্মেন্স দিয়ে মূল্যায়ন করবো। কিন্তু তাদের ভেতর দু জনের নাম মুখে এসে যায় দ্রুত। যার একজন হলেন বাংলাদেশের মুস্তাফিজ।
 
মুস্তাফিজের বোলিং যেকোন সময় ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারে। ক্রিকেটের এই জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার বলেন, ‘মুস্তাফিজকে অনেক টাকা দিয়ে কেনাটা তার উপর চাপ সৃষ্টি করতে পারে এবং তার চার ওভার অন্যান্য বোলারের থেকেও অতীব মূল্যবান। যদি এভাবে সেচালিয়ে যেতে পারে তাহলে আইপিএলের এবারকার আসরের একজন স্টার প্লেয়ার হতে পারে। তাকে দেখে খেলতে হবে খুব কাছ থেকে।’
-রুশাদ রাসেল, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটিম.কম