ম্যাচসেরার পুরস্কার দান করে দিলেন বোল্ট

0
865

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশকে গুড়িয়ে দিয়েছেন নিউজিল্যান্ড। টাইগার ব্যাটসম্যানদের নাস্তানাবুদ করেছেন কিউই পেসার ট্রেন্ট বোল্ট। ৪ উইকেট নিয়ে পাওয়া ম্যাচসেরার পুরস্কারটি তিনি দান করে দিয়েছেন তার শৈশবের ক্রিকেট ক্লাবে।

ম্যাচসেরার পুরস্কার দান করে দিলেন বোল্ট

Advertisment

তামিম ইকবালকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে সাজঘরের পথ দেখানোর পর একই ওভারে সৌম্য সরকারকেও শিকার করেছিলেন বোল্ট। ম্যাচের শুরুতেই বোল্টের দেওয়া সেই ধাক্কা আর কাটিয়ে উঠতে পারেনি বাংলাদেশ। তবে বোল্ট পরে আরও দুইটি উইকেট শিকার করেছিলেন।

তামিম ও সৌম্যর মতোই একই ওভারে তাসকিন আহমেদ ও হাসান মাহমুদকে নিজের জোড়া শিকারে পরিণত করেছিলেন বোল্ট। এই বাঁহাতি পেসার ৮.৫ ওভারে ২৭ রান খরচায় শিকার করেছিলেন ৪টি উইকেট। বাংলাদেশ অলআউট হয়েছিল ১৩১ রানে। ২ উইকেট হারিয়েই ম্যাচ জয় করে ফেলে নিউজিল্যান্ড।

ম্যাচের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি বোল্টই তাই ম্যাচ সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন। পুরস্কার স্বরূপ তিনি পেয়েছিলেন ৫০০ ডলার। সে পুরস্কার অবশ্য নিজের পকেটে ঢুকাননি। পুরোটাই দান করে দিয়েছেন নিজের শৈশবের টাওরাঙ্গা শহরের ওটুমোটাই ক্যাডেটসকে।

বোল্টের এই মহৎ কাজের সংবাদ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিনিময় করেছে খোদ নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট। ক্রিকেট বোর্ডটির ভাষায়, ‘২৭ রানে ৪ উইকেট নিয়ে ট্রেন্ট বোল্টই এই ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়। বোল্ট এই ৫০০ ডলার তাঁর শহরের ক্লাব ওটুমোটাই ক্যাডেটসকে দান করে দিয়েছেন।’

ওটুমোটাই ক্যাডেটস ক্লাবেই ক্রিকেট ক্যারিয়ারের শুরু বোল্টের। ২০০৬ সালে ১৭ বছর বয়সী বোল্ট আঞ্চলিক এক টুর্নামেন্টের ফাইনালে দুইবার হ্যাটট্রিক করেছিলেন। সেই ম্যাচে মোট ৭টি উইকেট নিয়েছিলেন নিউজিল্যান্ড দলের অন্যতম সেরা এই পেসার।