‘যুদ্ধ’ জয়ের পর বল হাতে নিলেন মোশাররফ রুবেল

ব্রেইন টিউমার জটিল পর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছিল। চিকিৎসকদের প্রচেষ্টা আর দেশবাসীর দোয়া ও সহযোগিতায় জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেল এখন অনেকটাই সেরে ওঠার পথে। ঘরোয়া পর্যায়ের জ্যেষ্ঠ এই ক্রিকেটার এবার বলও হাতে নিয়েছেন।

 

Advertisment
‘যুদ্ধ জয়ে’র পর বল হাতে নিলেন মোশাররফ রুবেল
একাডেমি মাঠে বল হাতে মোশাররফ রুবেল, করেছেন বোলিংও। ছবি: বিডিক্রিকটাইম

বিরতি দিয়ে কেমোথেরাপি চলছেই, এরই মাঝে বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) বিসিবি একাডেমিতে অনুশীলন করেন রুবেল। জিমে সময় কাটানোর পাশাপাশি ধীরে ধীরে দৌড়াচ্ছেন, এমনকি বোলিংও করেছেন। দীর্ঘদিন পর ক্রিকেট মাঠের প্রিয় তারকাকে দেখতে পেয়ে সংশ্লিষ্ট সবাই ছিলেন খুশি।

মাঠে ফিরতে মরিয়া রুবেল নিজেও যেন তৃপ্তি খুঁজে পেলেও মাঠের ছোঁয়া পেয়ে। জানিয়েছেন, অক্টোবর থেকে শুরু হতে যাওয়া জাতীয় ক্রিকেট লিগ দিয়ে আবারো ক্রিকেটে ফিরতে চান পুরোদমে। খেলতে চান আগামী ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগেও। তবে রোগ যাতে ফের মাথাচাড়া দিয়ে না ওঠে তা নিশ্চিত করার জন্য এরই মাঝে চালিয়ে যেতে হবে কেমোথেরাপি।

বিডিক্রিকটাইমকে রুবেল বলেন, ‘হালকা জিম করেছি। আজকে বোলিং করব। পাঁচ মাস পর শুরু করলাম। আবার মাঠে ফিরতে চাই। ডাক্তার আমার সবকিছু টেস্ট করেছেন, সবই আগের মত আছে। এখন আস্তে আস্তে দৌড় শুরু করার জন্য বলা হয়েছে। অক্টোবর থেকে (জাতীয় লিগ) খেলতে পারব কি না জিজ্ঞেস করেছিলাম, বলেছে পারব।’

রুবেলের সুস্থতা এখন যতটা না শারীরিক, তার চেয়েও বেশি মানসিক ব্যাপার। ‘যুদ্ধজয়ে’র পর আত্মপ্রত্যয়ী রুবেলের কাছে এই মানসিক শক্তি কঠিন কিছু নয়, তা প্রমাণ করেছেন বল হাতে নিয়েই। তিনি বলেন, ‘যে চিকিৎসা বা বড় অস্ত্রোপচার হল এটার বাকি অংশ এখন পুরোপুরি মানসিক ব্যাপার। ডাক্তার বলেছে কোনো সমস্যা নেই। তবে একটা ম্যাচ খেললে বুঝতে পারব। জাতীয় লিগের প্রথম ম্যাচ খেলে বুঝতে পারব কতটুকু মাঠে দিতে পারছি। ভালোর প্রত্যাশায় রইলাম।’

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।