রবিনসনের শাস্তি মানতে পারছেন না ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

৮-৯ বছর আগে টুইটারে করা বর্ণবাদী মন্তব্যের কারণে বড় শাস্তি পেয়েছেন ইংলিশ পেসার অলি রবিনসন। লর্ডসে স্বপ্নের মত টেস্ট অভিষেকের পরপরই তাকে নিষিদ্ধ করেছে ইংল্যান্ড বোর্ড ইসিবি। তবে রবিনসনের এত বড় শাস্তি মেনে নিতে পারছেন না ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

রবিনসনের শাস্তি মানতে পারছেন না ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

Advertisment

রবিনসনকে নিষিদ্ধ করার শাস্তি ‘অতিরিক্ত’ হয়ে গেছে বলে অভিমত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর। তাই ইসিবিকে শাস্তি প্রশমনের আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি, পরামর্শ দিয়েছেন শাস্তির সিদ্ধান্ত ‘পুনর্বিবেচনা’র।

রবিনসনের শাস্তির বিষয়ে তার দেশের প্রধানমন্ত্রীর এই প্রতিক্রিয়া ফলাও করে প্রচার করেছে খোদ ব্রিটিশ মিডিয়া। লর্ডস টেস্টে ইংল্যান্ডের পারফরম্যান্স সন্তোষজনক ছিল না। বলার মত পারফরম্যান্স যা ছিল এই অভিষিক্ত রবিনসনের। এমন একটা ক্রিকেটারকে এক ম্যাচ পরই হারিয়ে ফেলতে হলে স্বভাবতই যে হইচই হওয়ার কথা, তাই হচ্ছে। অপরাধ করেও অনেককে পাশে পাচ্ছেন রবিনসন।

মুসলিম ও এশীয়দের নিয়ে বিতর্কিত টুইট ক্ষমা চাইলেন রবিনসন
রবিনসনের পুরনো টুইট।

মুখপাত্রের মাধ্যমে বরিস জনসন তার অভিমত জানানোর পর ব্রিটিশ ক্রীড়া ও সংস্কৃতিসচিব অলিভার ডাউডেনও বরিসের সুরে সুর মিলিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘অলি রবিনসনের টুইট ভুল ছিল এবং খুব বাজেও ছিল। কিন্তু সেগুলো প্রায় এক দশক পুরোনো এবং তার কৈশোরের কাজ। সেই কিশোর এখন পূর্ণবয়স্ক মানুষ এবং সঠিক পথে এসে ক্ষমাও চেয়েছে। তাকে নিষিদ্ধ করে ইসিবি বেশি বাড়াবাড়ি করেছে, ওদের আরেকবার ভাবা উচিত।’