Score

লিখনের বোলিং তোপে ঢাকার ব্যাটিং বিপর্যয়

ফতুল্লায় ২০তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের প্রথম রাউন্ডের ম্যাচে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে ঢাকা বিভাগ। টায়ার টু-এর খেলায় সোমবার চট্টগ্রাম বিভাগের বিপক্ষে মাত্র ১৩৮ রানেই গুটিয়ে গেছে ঢাকার ইনিংস। জবাবে ব্যাট করতে নেমে অবশ্য স্বস্তি নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারেনি চট্টগ্রাম বিভাগও। ২৫ রান তুলতেই দলটি হারিয়ে ফেলেছে দুটি উইকেট।

লিখনের বোলিং তোপে ঢাকার ব্যাটিং বিপর্যয়
জুবায়ের হোসেন লিখন। ফাইল ছবি

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে এদিন দলকে ভালো শুরু এনে দেন ওপেনার রনি তালুকদার এবং আবদুল মজিদের রিটায়ার্ড হার্ট হওয়ার সুবাদে শুরুতেই ক্রিজে আসা সাইফ হাসান। উদ্বোধনী জুটিতে তিনজনের মিলিত প্রয়াসে যুক্ত হয় ৮৩ রান। ৩৪ রান করা সাইফের বিদায়ের পর শুভাগত হোমকে নিয়ে রনি গড়েন ৩৫ রানের ইনিংস। ব্যক্তিগত ৫৯ রানের মাথায় রনির বিদায়েও পথ হারায়নি ঢাকা।

তাইবুর রহমানের দৃঢ় ব্যাটিং দলটিকে দিচ্ছিল বড় সংগ্রহের ইঙ্গিত। তবে তার রেখে যাওয়া রানের ছন্দকে ধরে রাখতে পারেননি শুভাগত হোম, নাদিফ চৌধুরী, আবদুল মজিদ বা মোশাররফ হোসেনদের কেউই। শেষদিকে তো কারও রান ছুঁতে পারেনি দুই অঙ্কও। টেল এন্ডারদের সমর্থন না পাওয়াও ৮১ ওভার ব্যাট করে ২৩৮ রানেই থামে ঢাকার ইনিংস।

চট্টগ্রামের পক্ষে লেগ স্পিনার জুবায়ের হোসেন লিখন একাই শিকার করেন পাঁচটি উইকেট। প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে বেশ কয়েকটি ম্যাচের পর ইনিংসে দুটির বেশি উইকেট পেলেন তিনি। নাইম হাসান শিকার করেন তিনটি উইকেট, দুটি উইকেট পান হাসান মাহমুদ।

Also Read - তুষারের শতকের দিনেও ম্লান খুলনা

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই খেই হারায় চট্টগ্রাম বিভাগও। দলীয় ১ রানে ওপেনার ইরফান সুক্কুর ও ৫ রানে জাতীয় দলের ক্রিকেটার মুমিনুল হককে হারিয়ে চাপে পড়ে যায় দলটি। তবে ১৬ বলে ২৩ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে প্রতিরোধ গড়ে তোলেন সাদিকুর রহমান। ২ রান নিয়ে তার সাথে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন তাসামুল হক। ঢাকার পক্ষে দুটি উইকেটেরই শিকারি শাহাদাত হোসেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম দিন শেষে)

ঢাকা ১ম ইনিংস- ২৩৮/১০ (৮১ ওভার)

তাইবুর ৬৩, রনি ৫৯, সাইফ ৩৪

লিখন ৬১/৫, নাইম ৭৪/৩

চট্টগ্রাম ১ম ইনিংস- ২৫/২ (৭ ওভার)

সাদিকুর ২৩*, তাসামুল ২*

শাহাদাত ১৮/২

চট্টগ্রাম বিভাগ ২১৩ রানে পিছিয়ে।

আরও পড়ুন: পাকিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের রোমাঞ্চকর জয়

Related Articles

ক্যারিয়ারের শেষ ইনিংসেও রঙিন রাজিন

জাতীয় লিগের শিরোপা জিতল রাজশাহী বিভাগ

ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচেও রাজিনের ব্যাটে রান

বিদায়ের কথা জানাতে গিয়ে অশ্রুসিক্ত রাজিন

আশা জাগিয়েও পারলেন না আশরাফুল