লিটন-মুস্তাফিজকে অস্ট্রেলিয়া সিরিজে পাওয়ার আশা দলের

জিম্বাবুয়ে সফর শেষ করেও দম ফেলার সুযোগ নেই টি-টোয়েন্টি দলের। জিম্বাবুয়ে থেকে ফিরেই সরাসরি জৈব সুরক্ষা বলয় শুরু করতে হবে অস্ট্রেলিয়া সিরিজের জন্য। যদিও অস্ট্রেলিয়া সিরিজে দলের অন্যতম সেরা দুই তারকাকে নিয়ে আছে অনিশ্চয়তা।

লিটন-মুস্তাফিজকে অস্ট্রেলিয়া সিরিজে পাওয়ার আশা নির্বাচকদের

Advertisment

চোট বা ব্যক্তিগত কারণে যারা জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেননি বা মাঝপথে দেশে ফিরেছেন, তাদের অস্ট্রেলিয়া সিরিজে অংশগ্রহণের সুযোগ নেই। কারণ জিম্বাবুয়ে থেকে ফেরার অপেক্ষায় থাকা বহরের বাইরের ক্রিকেটারদের নির্দিষ্ট সময় কোয়ারেন্টিন পালন করতে হবে। কিন্তু টি-টোয়েন্টি সিরিজে দলের সাথে ছিলেন, অনিশ্চয়তা আছে এমন ক্রিকেটারদের নিয়েও।

দলের ওপেনার লিটন দাস ও পেস আক্রমণের নেতা মুস্তাফিজুর রহমান- দুইজনই ভুগছেন চোটে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টির একাদশে থাকলেও পরের দুই ম্যাচে মাঠে নামতে পারেননি। অস্ট্রেলিয়া সিরিজের দলে তারা নিশ্চিতভাবেই থাকছেন, তবে অনিশ্চিত অংশগ্রহণ।

দল অবশ্য এখনও অজিদের বধ করার পরিকল্পনা করছে এই দুই ক্রিকেটারকে পাওয়ার প্রত্যাশা রেখেই। বিডিক্রিকটাইমকে নির্বাচক হাবিবুল বাশার জানালেন, লিটন ও মুস্তাফিজকে অস্ট্রেলিয়া সিরিজে পাওয়ার আশা রাখছেন তারা। একইসাথে স্কোয়াডে সদস্য বাড়ানোর সুযোগ না থাকায়ও কোনো হতাশা নেই, জানিয়েছেন তিনি।

বাশার বলেন, ‘ওরা (লিটন-মুস্তাফিজ) এখানে আসার পর তো হাতে কিছু সময় থাকবে। ফিট হয়ে যাবে আশা রাখি। আমার মনে হয় না স্কোয়াড বড় করার প্রয়োজন আছে। ইতোমধ্যে ১৭ জন আছে দলে। খেলা যখন শুরু হবে তখন তো করোনা টেস্টে নেগেটিভ হয়েই মাঠে নামবে। এরপর আক্রান্ত হওয়ার সুযোগ কিন্তু কম।’

বাশারের মতে, অস্ট্রেলিয়া সিরিজে যে ক্রিকেটারদের খেলার সুযোগ আছে তাতেই সামলানো যাবে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ। তিনি বলেন, ‘৭ দিনের মধ্যে ৫টি ম্যাচ। আমাদের স্কোয়াডে যেমন ৩ জন উইকেটকিপার, ৩ জন তো আর উইকেটকিপিং করবে না। যে কোনো একজনই করবে। তাই আমার মনে হয় না স্কোয়াড বড় করার দরকার আছে।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।