Scores

হেটমায়ারের ‘মিরাজ-জুজু’র রহস্য কী?

শিমরন হেটমেয়ার যেন পারলে মেহেদী হাসান মিরাজের সামনে থেকে পালিয়ে বাঁচেন! ক্যারিবীয় এই ব্যাটসম্যান বারবার মিরাজের শিকারে পরিণত হচ্ছেন। এতদিন ব্যাপারটিকে বিনোদন হিসেবেদেখলেও শুক্রবার তৃতীয় ওয়ানডেতে আবারও হেটমেয়ার মিরাজের শিকার হওয়ায় একে আর স্বাভাবিকভাবে দেখার উপায় নেই।

বাংলাদেশ বনাম উইন্ডিজ ওয়ানডে

তাহলে কি ভূতুড়ে কিছু আছে নাকি?

মনে জাগতে পারে অনেক প্রশ্নই। সবচেয়ে উত্তম তাই খোদ মিরাজকেই জিজ্ঞেস করে নেওয়া। ম্যাচ ও সিরিজ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে তরুণ ক্রিকেটারকে সামনে পেয়েসাংবাদিকরা সেই সুযোগ হাতছাড়া করলেন না। জবাবে মিরাজ জানালেন, কেন বারবার তিনিই শিকার করে নিচ্ছেন হেটমেয়ারকে, হেটমেয়ারের ‘মিরাজ-জুজু’র কারণই বা কী হতে পারে…

মিরাজ জানিয়েছেন, হেটমেয়ারকে একাধিকবার আউটকরার পর থেকেই তাকে সামনে পেলে বেশি মনোযোগ দিয়ে বল করেন তিনি। আর তাতেই ফাঁদে পা দিয়ে বসেন ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান। সংবাদ সম্মেলনে মিরাজ বলেন, ‘হেটমায়ার যখন ব্যাটিংয়ে আসে তখন আমি হয়ত একটু বেশি সিরিয়াস থাকি। কারণ আমার বলে যেহেতু আউট হচ্ছে তাই আমি জিনিসটাকে ক্যাজুয়ালি নেই না। ও যেহেতু আমার বলে আউট হচ্ছে হয়ত আমার উপর চড়াও হতে পারে। এজন্য আমি আরও বেশি সিরিয়াস থাকি।’

Also Read - বাংলাদেশের যত ওয়ানডে সিরিজ জয়


হেটমেয়ার ব্যাট হাতে নামলেই বেড়ে যায় বলহাতে মিরাজের মনোযোগ। তাতেই হয়ত হেটমেয়ারের চেয়ে এগিয়ে যান তিনি। মিরাজ বলেন, ‘ও যখন ব্যাটিংয়ে নামে আমার ফোকাসটা বেড়ে যায়। হয়ত এ কারণেই ও পিছিয়ে থাকে বা আমি একটু এগিয়ে থাকি।আমার ফোকাস বেশি থাকে এজন্য হয়ত ওর আমাকে খেলতে সমস্যা হয়।’

মিরাজকে দিয়েই স্পিন দিয়ে বোলিং শুরুর দুঃসাহসিক অধ্যায়কে নিয়মে পরিণত করেছে বাংলাদেশ। মিরাজ জানিয়েছেন, কাজটি কঠিন হলেও উপভোগ করেন তিনি।

মিরাজের ভাষ্য, ‘প্রথমে বল করা একটু কঠিন, দুইটা ফিল্ডার বাইরে থাকে। একটু উনিশবিশ হলেই বাউন্ডারি হয়ে যায়। তবে আমার কাছে ভালোই লাগে। কারণ ভালো জায়গায় বল করলে উইকেট পাওয়ার ও ডট বল হওয়ার সুযোগ বেশি থাকে। আমি ওটাই চেষ্টা করি যে নতুন বলে জায়গা মেইন্টেন করতে; বাউন্ডারি যেন না হয়, সিঙ্গেল হোক… এটাই চেষ্টা করি।’

আরও পড়ুনমিরাজদের পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট অধিনায়ক

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে রনি-সানজামুল-এবাদতদের বোলিং নৈপুণ্যে

‘অপরাজিতা’ অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বরেকর্ড

শেষ ওভারে গিয়ে হেরে গেল বাংলাদেশ

জয়ের জন্য ওভারপ্রতি সাড়ে সাত রান প্রয়োজন কিউইদের

দুই সেট ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে পাঠিয়ে ম্যাচে ফিরল বাংলাদেশ