শীর্ষে রশিদ, উন্নতি রিয়াদ-মুশফিকের

0
2318

আফগানিস্তান ও বাংলাদেশের মধ্যকার তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিং হালনাগাত করেছে আইসিসি। সফল সিরিজে বল হাতে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে প্রতিপক্ষকে গুঁড়িয়ে দেওয়ার ফল হাতেনাতে পেয়েছেন আফগানিস্তানের লেগ-স্পিনার রশিদ খান। তিন ম্যাচ থেকে ৫৪ রেটিং পয়েন্ট পেয়ে বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে নিজেকে সবার ধরাছোঁয়ার বাইরে নিয়ে গেছেন তিনি।

প্রেসিডেন্টের পরেই স্থান রশিদের!

Advertisment

বল হাতে সিরিজজুড়ে বাংলাদেশকে চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলা আরও দুই আফগান স্পিনার-মোহাম্মদ নবী ও মুজিব উর রহমানও বোলিং র‌্যাঙ্কিংয়ে দেখেছেন উন্নতির মুখ। ১১ ধাপ এগিয়ে আইসিসি টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে নবী ওঠে এসেছেন অষ্টমস্থানে। অন্যদিকে এক লাফে ৬২ ধাপ এগিয়ে মুজিবের বর্তমান অবস্থান ৫১তম অবস্থানে।

আফগান বোলারদের উন্নতির বিপরীতে অবনতির ছায়া ধরা দিয়েছে বাংলাদেশ শিবিরের বোলারদের টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে।

সিরিজের প্রথম ও শেষ ম্যাচে বল হাতে দারুণ পারফরম্যান্স করলেও এক ধাপ অবনমনে ৬০৮ রেটিং নিয়ে বোলারদের মধ্যে ১৩তম স্থানে নেমে গেছেন বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। অন্যদিকে, সিরিজে না খেললেও অবনতি হয়েছে মুস্তাফিজুর রহমানের। দুই ধাপ অবনমনে তার বর্তমান অবস্থান দশমস্থান।

বোলাররা আইসিসি টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে অবনতির মুখ দেখলেও, বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে উন্নতির দেখা পেয়েছেন মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তিন ম্যাচে সমান ৮৮ রান করে ৪ ধাপ এগিয়ে রিয়াদের বর্তমান অবস্থান ৩৩তম অবস্থানে। আর ৩ ধাপ এগিয়ে মুশফিক রয়েছেন আইসিসি টি-টোয়েন্টি ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ের ৪১তম অবস্থানে।

রিয়াদের দৃষ্টিতে 'আফগান বোলিং বনাম টাইগারদের ব্যাটিং'

বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজে সবচেয়ে বেশি রান (১১৮) করা আফগান ব্যাটসম্যান সামিউল্লাহ শেনওয়ারি ১১ ধাপ এগিয়ে উঠেছেন ৪৪তম স্থানে।

অন্যদিকে, আইসিসি বিশ্ব একাদশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ব্যাট হাতে তাণ্ডব ছড়িয়ে এক ধাপ এগিয়ে র‌্যাঙ্কিংয়ের পাঁচে ওঠে এসেছেন এভিন লুইস। তবে ব্যাটসম্যানদের তালিকার শীর্ষ চারে আসেনি কোন পরিবর্তন। আগের মতোই বাবর আজম, কলিন মুনরো, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও অ্যারন ফিঞ্চ রয়েছেন যথাক্রমে তালিকার শীর্ষ চারে।

এদিকে, আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ হারলেও টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে অবস্থানের পরিবর্তন হয়নি বাংলাদেশ বা আফগানিস্তানের মধ্যে কারোরই। তবে সিরিজ হারে ৫ রেটিং পয়েন্ট কমে বাংলাদেশের বর্তমান রেটিং পয়েন্ট গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৭০। পক্ষান্তরে, আফগানদের রেটিং বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯১।


আরও পড়ুনঃ “মানসিক বাধাটা কাটিয়ে উঠতে পারলাম না!”