স্টোকসের অলরাউন্ড পারফরমেন্সে সিরিজে সমতা আনল ইংল্যান্ড

0
1063

বিতর্কে জড়িয়ে হারিয়ে যেতে বসেছিলেন। জেল-জরিমানাও হয়েছিল। একটা সময় মনে হয়েছিল, অল্প সময়ের মধ্যে হয়ত আর ইংল্যান্ড জাতীয় দলে ফেরা হবে না তার। তবে সব বিতর্ক পেছনে ফেলে দুঃসময় কাটিয়ে আবারও দলে ফিরেছেন বেন স্টোকস। আর তার অলরাউন্ড পারফরমেন্সেই বুধবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড।

স্টোকসের অলরাউন্ড পারফরমেন্সে সিরিজে সমতা আনল ইংল্যান্ড

Advertisment

মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে সফরকারী ইংল্যান্ড জিতেছে ৬ উইকেটে। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারের ২ বল আগেই ২২৩ রানে অলআউট হয়ে যায় স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকলেও দল সম্মানজনক সংগ্রহ পায় ওপেনার মার্টিন গাপটিল ও মিচেল স্যান্টনারের দৃঢ় ব্যাটিংয়ে। ৫২ বলে ৬৩ রানের ঝড়ো এক ইনিংস খেলে অপরাজিত থেকেই মাঠ ছাড়েন স্যান্টনার। গাপটিলের ব্যাট থেকে আসে ৫০ রান। এছাড়া কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ৩৮ এবং টম লাথাম ২২ রান করেন।

ইংল্যান্ডের পক্ষে দুটি করে উইকেট শিকার করেন ক্রিস ওকস, মঈন আলী ও বেন স্টোকস।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতে ওপেনার জেসন রয়ের উইকেট হারালেও এরপর প্রতিরোধ গড়ে তোলেন জনি বেয়ারস্টো। ৯ রান করে জো রুটের বিদায়ের পর ব্যক্তিগত ৩৭ রানে সাজঘরে ফেরেন বেয়ারস্টোও। তবে এরপর দলের পক্ষে হাল ধরেন ইয়ন মরগান ও বেন স্টোকস। মরগান ৬২ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে গেলেও ৬৩ রানে অপরাজিত থাকেন স্টোকস। এছাড়া ৩৬ রানের কার্যকরী এক ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন জস বাটলারও।

ব্যাটিং দৃঢ়তায় মাত্র ৩৭.৫ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়েই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় সফরকারী ইংল্যান্ড। এতে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে বিরাজ করছে ১-১ ব্যবধানে সমতা। ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন বেন স্টোকস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

নিউজিল্যান্ড ২২৩ (স্যান্টনার ৬৩*, গাপটিল ৫০; মঈন ৩৩/২)

ইংল্যান্ড ২২৫/৪ – ৩৭.৫ ওভার (স্টোকস ৬৩*, মরগান ৬২; বোল্ট ৪৬/২)

ফল- ইংল্যান্ড ৬ উইকেটে জয়ী।

আরও পড়ুনঃ ভুল শুধরেই নিজেকে প্রমাণ করতে চান সৌম্য