সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস

শেন ওয়ার্নকে হারানোর শোক এখনও কাটিয়ে উঠতে পারেনি ক্রিকেট বিশ্ব। এরই মধ্যে চলে গেলেন আরেক অস্ট্রেলীয় কিংবদন্তি অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস। অস্ট্রেলিয়ার সোনালি যুগের এই ক্রিকেটার এক সড়ক দুর্ঘটনায় বরণ করে নিয়েছেন মৃত্যুকে।

'আইপিএলের অর্থ' ফাটল ধরায় ক্লার্ক-সাইমন্ডসের বন্ধুত্বে
মাইকেল ক্লার্ক ও অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস। ফাইল ছবি

মৃত্যুকালে সাইমন্ডসের বয়স হয়েছিল ৪৬ বছর। অস্ট্রেলিয়ার টাউন্সভিলের ৫০ কিলোমিটার দূরে রবিবার (১৫ মে) দুর্ঘটনার কবলে পড়ে সাইমন্ডসের গাড়ি। অ্যালিস রিভার ব্রিজ থেকে বাঁ দিকে যাওয়ার সময় গাড়িটি উল্টে যায়। ধারণা করা হচ্ছে তখন রাত ১১টা বাজছিল।

Advertisment

সাইমন্ডস ছাড়াও এ দুর্ঘটনায় তার এক সহযাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। তার মৃত্যুতে ক্রিকেট দুনিয়ায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

বার্মিংহামে জন্ম নেওয়া সাইমন্ডসের ছিল ক্যারিবীয় ব্যাকগ্রাউন্ড। তবে সুযোগ বেশি ছিল ইংল্যান্ডের হয়ে খেলার। সাইমন্ডসকে দত্তক নেওয়ার পরপরই তার বাবা-মা কুইন্সল্যান্ডে চলে আসেন। একসময় তিনি হয়ে ওঠেন বিশ্ব মাতানো অলরাউন্ডার।

২০০৪ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত ২৬টি টেস্ট খেলেছেন সাইমন্ডস। ৪১ গড়ে দুটি সেঞ্চুরিতে ১৪৬২ রান করেছেন তিনি, আছে ২৪টি উইকেটও। অফ স্পিনের পাশাপাশি মিডিয়াম পেস বলও করতেন। টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলেছেন ১৪ মে। সেখানে ব্যাট করেছেন ১৬৯ স্ট্রাইক রেটে।

টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি কম খেললেও ওয়ানডে খেলে নিজেকে নিয়ে যান কিংবদন্তিদের কাতারে। ১৯৮টি ওয়ানডে খেলা সাইমন্ডস এই ফরম্যাটে ৫০৮৮ রানের মালিক, গড় যেখানে ৪০। ৬টি সেঞ্চুরিতে রান করেছেন ৯২ স্ট্রাইক রেটে। শিকার করেছেন ১৩৩টি উইকেট। একটা সময় অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে দলে অবিচ্ছেদ্য অংশ ছিলেন সাইমন্ডস।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।