হাথুরুর কোচিংয়ে কেন অসন্তোষ, ব্যাখ্যা দিলেন মোসাদ্দেক

0
685

বাংলাদেশের ক্রিকেটে বিশেষ জায়গা দখল করে আছেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। ২০১৪ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশের ক্রিকেটে ঘটেছে রাজসিক উত্থান। এ সময়ে তিনিই ছিলেন টাইগারদের প্রধান কোচ।

হাথুরুর কোচিংয়ে কেন অসন্তোষ, ব্যাখ্যা দিলেন মোসাদ্দেক

Advertisment

তবে তার অধীনে দারুণ সাফল্য থাকা সত্ত্বেও হাথুরুসিংহের প্রতি নাখোশ ছিলেন দলের বেশিরভাগ ক্রিকেটার। হাথুরুসিংহে ভালো কোচ- এ কথা সবসময় মেনে নিয়েছেন সব ক্রিকেটারই। তবে তার কোচিং দর্শন একটু কড়া মানসিকতার বলে বিষয়টি স্বাভাবিকভাবে নিতে পারেননি ক্রিকেটাররা।





সম্প্রতি বিডিক্রিকটাইমের সাথে আলাপকালে এমনটিই জানান বাংলাদেশ দলের তরুণ অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। হাথুরুসিংহের অধীনেই ক্যারিয়ারের বেশিরভাগ ম্যাচ খেলা এই ক্রিকেটার কোচ হাথুরুসিংহের প্রশংসা করলেও কখনোই হাথুরুসিংহের কোচিং উপভোগ করেননি।

মোসাদ্দেক বলেন, ‘আমি যতদিন ছিলাম বেশিরভাগ সময়ই তো হাথুরুসিংহে ছিল। ওর সাথেই সবচেয়ে বেশি কাজ করা হয়েছে। ওর পরিকল্পনা ভালো ছিল। খেলোয়াড়দের বুঝতে পারত। তবে খুব একটা মজা পাইনি, একটু ভয়ই পেতাম ওকে।’






কেন হাথুরুসিংহের প্রতি ভয় কাজ করত ক্রিকেটারদের? মোসাদ্দেক সুন্দরভাবে করেছেন বিশ্লেষণ। তিনি বলেন-

‘যদি বয়সভিত্তিক ক্রিকেটের কথা চিন্তা করেন… স্কুলে পড়ার সময় কিন্তু শিক্ষকরা ছাত্রদের কড়া কথা বলেন। কিন্তু কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে আপনি সবকিছু বুঝতে পারেন, ঐসময় শিক্ষকদের পরিকল্পনা-পরামর্শ বুঝবার ক্ষমতা আপনার থাকে। এই সময় শিক্ষকরা কড়াভাবে কথা বলেন না, জোর প্রয়োগ করেন না। এই বিষয়টা ওর মধ্যে ছিল না। এ কারণেই ওকে ভয় পেতাম।’

শিষ্যদের ভুল ধরার প্রবণতা যেন একটু বেশিই ছিল হাথুরুসিংহের মধ্যে। গণমাধ্যমের সামনেও কখনো খোলামেলাভাবে শিষ্যদের ভুলত্রুটি নিয়ে আলোচনা করতেন।

মোসাদ্দেক বলেন, ‘আমার মনে হয় এখন পর্যন্ত যতটুক ক্রিকেট খেলেছি, আমার ৬০-৭০ শতাংশই ভুল আছে। শিক্ষক ছাত্রের ভুল ধরবে, স্বাভাবিক। আমাদের ভালো জন্যই ধরেন। কিন্তু হাথুরুসিংহের ভুল ধরার পথ অন্যরকম ছিল। এজন্য ভয় কাজ করত।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।