হাসারাঙ্গার ব্যাটিংয়ে ভয় পায়নি বাংলাদেশ 

জয় প্রায় নিশ্চিত জেনে বাংলাদেশ যখন একটু গা এলিয়ে দেবে, তখনই শুরু হল ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ঝড়। এক পশলা বৃষ্টির আশায় দেশবাসীর প্রাণ যখন ওষ্ঠাগত, তখন অনাহূত ঝড় উঠেছিল লঙ্কান লোয়ার মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানের ব্যাটে। যদিও সেই ঝড় ভয় পাওয়াতে পারেনি প্রতিপক্ষকে।

হাসারাঙ্গার ব্যাটিংয়ে ভয় পায়নি বাংলাদেশ 

Advertisment

আট নম্বরে নেমে হাসারাঙ্গা এদিন মনে করিয়ে দিয়েছিলেন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকে, যদিও ফরম্যাটটা ওয়ানডে। মিরপুরে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ২৫৮ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ১০২ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় লঙ্কানরা। এরপর হাসারাঙ্গা ক্রিজে এসে সাবলীল ব্যাটিংয়ে রান তুলছিলেন মুড়িমুড়কির মত।

এতে দর্শকরা চাপে পড়ে গেলেও দল চাপে পড়েনি বলে দাবি ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে আসা মেহেদী হাসান মিরাজের। ৩টি চার ও ৫টি ছক্কায় ৬০ বলে ৭৪ রান করে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের শিকার হন হাসারাঙ্গা। তার আগে দল ম্যাচ ফসকানোর দুশ্চিন্তায় পড়েনি বলে জানালেন মিরাজ।

তিনি বলেন, ‘আমাদের একটা চিন্তা ছিল- ও অনেক ভালো করছে, ক্লিন হিট খেলছে, যেটাই খেলছে সেটাই লেগেছে; কিন্তু আমাদের বিশ্বাস ছিল- যেকোনো সময় একটা উইকেট পড়লেই ম্যাচ আমাদের পক্ষে চলে আসবে। ওর পর কোনো ব্যাটসম্যান ছিল না। ও আউট হয়ে যাওয়াতে তাড়াতাড়ি অলআউট করতে পেরেছি।’

ব্যক্তিগত ৬৯ রানে অবশ্য জীবন পেয়েছিলেন হাসারাঙ্গা। তার ক্যাচ ছেড়েছিলেন লিটন দাস। শেষপর্যন্ত দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যেতে পারেননি লঙ্কান ক্রিকেটার। তাতে বাংলাদেশ জয়ের দেখা পেয়েছে দশ ম্যাচ পর।

তাই এই জয় স্বস্তি এনে দিয়েছে মিরাজের কণ্ঠে। তিনি জানান, ‘অনেকদিন ধরেই আন্তর্জাতিক ম্যাচে জয় পাচ্ছিলাম না। এই জয় গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ওয়ানডেতে তো সবসময় আলহামদুলিল্লাহ ভালো খেলি। দলে সবাই ছিল এজন্য আরও বেশি ভালো হয়েছে।’