Scores

২০১৮ কে যে ‘খরা’ থেকে বাঁচালেন মুশফিক

টেস্টের জনপ্রিয়তা কি কমছে? গত কয়েক বছর ধরে ক্রিকেটের আধুনিকায়নের বিপরীতে সবচেয়ে বেশি উচ্চারিত প্রশ্ন এটা। এই প্রশ্ন আরও জোরালো হয়েছিল চলতি বছর টেস্টে বড় ইনিংসের সংখ্যা কম থাকায়।

২০১৮ কে যে ‘খরা’ থেকে বাঁচালেন মুশফিক

ঢাকা টেস্টের আগে এ বছর মোট ৩৪টি টেস্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে। অর্থাৎ, এতগুলো টেস্ট মিলে মাঠে গড়াতে পারতো ১৩৪টি ইনিংস। অবশ্য ৭টি টেস্টে এক পক্ষ ইনিংস ব্যবধানে জয় পাওয়ায় ইনিংসের সেই সংখ্যাটা ১৩৪ নয়, ১২৭। তাই বলে সংখ্যাটা কি এতই কম, যে ৩৪টি টেস্টে নেই কোনো দ্বি-শতক? এটি কি বোলারদের দাপুটে পারফরম্যান্সের কারণ, নাকি টেস্টের প্রতি ব্যাটসম্যানদের ‘দায়’ কমে যাওয়া?

মর্যাদার ফরম্যাটে বোলারদের দাপট খুব বেশি বেড়েছে এমনটি বলার সুযোগ নেই। তাই ১১ নভেম্বর পর্যন্ত এ বছর কোনো টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরির খোঁজ না পাওয়া বিস্ময় ও হতাশা জাগানিয়া বিষয়ই। সেই বিস্ময় কিংবা হতাশা দূরীভূত হল ১২ নভেম্বর, মুশফিকুর রহিমের ব্যাটে ভর করে। আগের দিনের ১১১ রানের অপরাজিত ইনিংসকে দুইশর ঘরে পৌঁছে দিয়ে মুশফিক ক্রিকেট বিশ্বকে উপহার দিয়েছেন বছরের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি!

Also Read - দ্বিতীয় দিন শেষে চালকের আসনে বাংলাদেশ


দেশের প্রথম সারির একটি সংবাদমাধ্যমে মুশফিকের এই অবদান সম্পর্কিত প্রতিবেদনের শিরোনাম দেওয়া হয়েছে- ‘মুশফিকের কাছে ঋণী ২০১৮!’ সালটি মুশফিকের কাছে আসলেই ঋণী বটে। বছর শেষের পথে। ১০ মাস ১১ দিনে যেহেতু হয়নি, বাকি সময়ে দ্বি-শতক পাওয়ার সম্ভাবনা ছিল কমই। কোনো দ্বি-শতক ছাড়া এর আগে সর্বশেষ কেটেছিল ১৯৬৩ সাল। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ঐ বছর ছাড়াও ডাবল সেঞ্চুরির দেখা মেলেনি কেবল ১৯৫২ ও ১৯৬১ সালে। তখন টেস্ট খেলুড়ে দলের সংখ্যাও ছিল কম, একমাত্র আন্তর্জাতিক ফরম্যাট হিসেবে টেস্ট খুব একটা খেলাও হতো না। দ্বি-শতক দেখতে না পাওয়ার পেছনে তাই দাঁড় করানো যেত ‘অজুহাত’। কিন্তু আধুনিক ক্রিকেটের জমানায় এসে এবার যদি বছর শেষ হতো কোনো ব্যাটসম্যানকে ডাবল সেঞ্চুরির উদযাপন করতে না দেখেই?

মুশফিক এই বছরকে বড় লজ্জার হাত থেকেই বাঁচালেন!

আরও পড়ুন: মুশফিকের ডাবল সেঞ্চুরিতে যত রেকর্ড

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

দুর্নীতির দায়ে সাত বছরের জন্য নিষিদ্ধ ওমান ক্রিকেটার

বিশাল জয়ে ভারতকে উড়িয়ে দিল নিউজিল্যান্ড

জাহানারাদের গুগোলে খোঁজার হিড়িক!

সোনার আংটিতে ‘ইউনিভার্স বসের’ কীর্তি

শ্বাসরুদ্ধকর জয়ে সিরিজে ফিরলো দক্ষিণ আফ্রিকা