‘৩৩’ মাসে ডেথ ওভারে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি মুস্তাফিজ

মুস্তাফিজুর রহমান যেন হয়ে উঠেছেন ডেথ ওভার স্পেশালিষ্ট। টি-টোয়েন্টিতে স্লগ ওভারে শুধু আঁটসাঁট বোলিংই নয়, নিয়মিত পাচ্ছেন উইকেটের দেখাও। টি-টোয়েন্টিতে গত ৩৩ মাসে ডেথ ওভারে উইকেট শিকারের দিক থেকে সবচেয়ে সফল বাংলাদেশি এই পেসার।

'৩৩' মাসে ডেথ ওভারে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি মুস্তাফিজ

Advertisment

২০১৯ সাল থেকে টি-টোয়েন্টিতে ডেথ ওভারে সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকার করেছেন মুস্তাফিজ। এই যাত্রায় তিনি পেছনে ফেলেছেন ক্রিস মরিস, ডোয়াইন ব্রাভো, ক্রিস জর্ডান ও কাগিসো রাবাদাকে, যারা যথাক্রমে দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে রয়েছেন।

আরও পড়ুন : চ্যালেঞ্জ আমি সবসময় পছন্দ করি : সুজন

এদের মধ্যে ইকোনমি রেটের দিক থেকেও সবচেয়ে এগিয়ে মুস্তাফিজ। ৭.৯৫ ইকোনমি রেটে গত ৩৩ মাসে মুস্তাফিজ শিকার করেছেন ৬১টি উইকেট। দ্বিতীয় স্থানে আছেন মুস্তাফিজের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দল রাজস্থান রয়্যালসের সতীর্থ ক্রিস মরিস। ৮.৪৯ ইকোনমি রেটে তিনি শিকার করেছেন ৫৭ উইকেট।

তৃতীয় স্থানে আছেন ডোয়াইন ব্রাভো। ৮.২৬ ইকোনমি রেটে তিনি ডেথ ওভারে মোট ৫৫টি উইকেট শিকার করেছেন। ক্রিস জর্ডান ৯.৮৯ ইকোনমি রেটে ব্রাভোর সমান ৫৫টি উইকেট পেয়েছেন। ৯.৪৩ ইকোনমি রেটে কাগিসো রাবাদা শিকার করেছেন ৫২টি উইকেট।

'৩৩' মাসে ডেথ ওভারে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি মুস্তাফিজ

একনজরে ডেথ ওভারে টি-টোয়েন্টির সর্বোচ্চ ৫ উইকেট শিকারি (২০১৯ সাল থেকে)

১. মুস্তাফিজুর রহমান – উইকেট : ৬১ – ইকোনমি রেট : ৭.৯৫
২. ক্রিস মরিস – উইকেট : ৫৭ – ইকোনমি রেট : ৮.৪৯
৩. ডোয়াইন ব্রাভো – উইকেট : ৫৫ – ইকোনমি রেট : ৮.২৬
৪. ক্রিস জর্ডান – উইকেট : ৫৫ – ইকোনমি রেট : ৯.৮৯
৫. কাগিসো রাবাদা – উইকেট : ৫২ – ইকোনমি রেট : ৯.৪৩

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।