Scores

ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের হেড কোচের দায়িত্বে ওয়ালশ

বাংলাদেশের বোলিং কোচের দায়িত্ব হারানোর পর নতুন দায়িত্বে নিযুক্ত হয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের কিংবদন্তী পেসার

অবশেষে চাকরি পেলেন ওয়ালশ, তবে ‘অস্থায়ী

বাংলাদেশের বোলিং কোচের দায়িত্ব থেকে অব্যহতি লাভ করার পর থেকে চাকরিবিহীনই সময় কাটছিল কোর্টনি ওয়ালশের। কয়েকমাস

বাংলাদেশে কাজ করে ‘শিখেছেন’ ওয়ালশ

২০১৬ সালে বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ হিসেবে দায়িত্ব পান কোর্টনি ওয়ালশ। সাবেক এই ক্যারিবীয় বোলিং কিংবদন্তী

নিজ ইচ্ছাতেই বাংলাদেশ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন ওয়ালশ!

বিশ্বকাপের পর দল দেশের ফেরার পর জানা যায়, পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ আর বিসিবির সাথে

ওয়াসিম আকরামকে অপমান, ওয়ালশের সমালোচনা

সাবেক পাকিস্তানি ক্রিকেটার ওয়াসিম আকরাম হেনস্তার শিকার হয়েছেন ক্রিকেটের জন্মভূমি ইংল্যান্ডে। যে ঘটনায় তিনি বিব্রত বোধ

রোডসদের ভবিষ্যৎ জানা যাবে শ্রীলঙ্কা সিরিজের আগেই

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ এর মাঝপথেই জানা গিয়েছিল চাকরিচ্যুত হতে পারেন প্রধান কোচ স্টিভ রোডস। পেস

সব পেসারই প্রস্তুত হচ্ছেন নতুন বলের জন্য

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের গত হওয়া ম্যাচগুলোতে বোলিং শুরু করার দায়িত্ব ছিল না নির্দিষ্ট কোনো জুটির। একেক ম্যাচে

“মাশরাফিকে নিয়ে আমি চিন্তিত নই”

বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ জানিয়েছেন, টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মুর্তজা উইকেটের দেখা না

ফুরফুরে মেজাজে মাঠে ফিরলেন ক্রিকেটাররা

ক্রিকেটাররা অনুশীলনে যাওয়ার আগে তাড়াহুড়া করে কোর্টনি ওয়ালশের অনানুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন। কথা শেষ করে বাস ধরে

“বাংলাদেশকে ওয়ালশের আরও অনেক দেওয়ার আছে”

২০১৬ সালে বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর কোর্টনি ওয়ালশ এখন পর্যন্ত কতটুকু

গেইল-রাসেলদের নিয়ে আলাদা ছক কষছে বাংলাদেশ

বাংলাদেশের পরবর্তী ম্যাচ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। সেমিফাইনালের দৌড়ে টিকে থাকতে হয়ে সেই ম্যাচ অনেক গুরুত্বপূর্ণ বাংলাদেশের

ধারাবাহিকতাই মূল মন্ত্র ওয়ালশের কাছে

এবারের বিশ্বকাপে রুবেল বাদে বাংলাদেশ দলে নেই কোন গতিময় বোলার। বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচ কোর্টনি

রুবেল ইস্যুতে ধোঁয়াশাই রাখলেন ওয়ালশ

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের ২০১৯ এর আসরে এখনো একটি ম্যাচেও বাংলাদেশের জার্সি গায়ে মাঠে নামেননি ফাস্ট বোলার

বাংলাদেশের ‘এক্স ফ্যাক্টর’ লুকিয়ে রাখছেন ওয়ালশ

বিশ্বকাপের অংশগ্রহণকারী দলগুলোর একেকজন ক্রিকেটারকে কেন্দ্রবিন্দু ধরে সাজানো হচ্ছে পরিকল্পনা। ক্রিকেট মিডিয়ার চোখে যা ‘এক্স ফ্যাক্টর’।