SCORE

সর্বশেষ

সমর্থকদের হেনস্থার ঘটনায় বিসিএসএর নিন্দা

নিদাহাস ট্রফিতে বাংলাদেশি সমর্থকদের শ্রীলঙ্কান দর্শক কর্তৃক হেনস্থার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে ক্রিকেট সমর্থকদের সংগঠন বাংলাদেশ ক্রিকেট সাপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশন (বিসিএসএ)। রোববার এক বিবৃতিতে কলম্বোয় পৃথক দু’দিন সমর্থকদের সাথে ঘটে যাওয়া অপ্রত্যাশিত ঘটনা সম্পর্কে নিজেদের বক্তব্য জানায় সংগঠনটি।

সমর্থকদের হেনস্থার ঘটনায় বিসিএসএর নিন্দা

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘নিদাহাস ট্রফির ফাইনাল নিশ্চিত করা ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ ক্রিকেটের আইকনিক ফ্যান শোয়েব আলী বুখারি ও আরেক বাংলাদেশি সমর্থক বুলু চন্দ্র ঘোষকে শ্রীলঙ্কান সমর্থকদের হয়রানি, মারামারি ও শ্রীলঙ্কা পুলিশ এর অসহযোগিতার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।’

Also Read - ফাইনালে বাংলাদেশের চাপ দেখছেন না মাহেলা

গত ১০ মার্চ নিদাহাস ট্রফির তৃতীয় এবং বাংলাদেশের দ্বিতীয় ম্যাচে টাইগাররা মুখোমুখি হয়েছিল স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার। ২১৫ রান তাড়া করে রেকর্ড গড়া ঐ ম্যাচ শেষে গ্যালারিতেই বাংলাদেশি সমর্থকদের সাথে বাজে আচরণ করেন শ্রীলঙ্কার দর্শকরা। এ নিয়ে বিডিক্রিকটাইম-এ শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশি সমর্থকদের বিরূপ অভিজ্ঞতা? শিরোনামে তৎক্ষণাৎ একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর বিষয়টি সবার দৃষ্টিগোচর হয়।

কলম্বোর ৩৫ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতার আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ১০ সদস্যের বিসিএসএ দল ১০ মার্চ এসএলসি কর্মকর্তার সহায়তা ও আতিথ্য পাওয়ার কথা অবহিত করে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, ‘সেই বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা প্রথম ম্যাচের দিনও মদ্যপ অবস্থায় কিছু উচ্ছৃঙ্খল সমর্থক বিসিএসএ সদস্যদের সাথে অশোভন আচরণ করে। আমাদের দায়িত্ববোধ থেকে অল্প কিছু সমর্থকের এমন আচরণকে প্রাধান্য দিয়ে আমরা শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট সমর্থকদের বিচার করতে পারি না।’

১৬ মার্চ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আসরের দ্বিতীয় ম্যাচে আবারও মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। পয়েন্ট টেবিলের মারপ্যাঁচে ঐ ম্যাচই হয়ে দাঁড়ায় দ্বিতীয় ফাইনালিস্ট নির্ধারণের মঞ্চ, যেখানে ২ উইকেটের রোমাঞ্চকর এক জয় পেয়ে ফাইনালে জায়গা করে নেয় টাইগাররা। উত্তেজনাপূর্ণ ঐ ম্যাচ শেষে শ্রীলঙ্কান দর্শকরা আবারও চড়াও হন বাংলাদেশের সমর্থকদের উপর। বাঘের অবয়বে গ্যালারি মাতানো টাইগার ভক্ত শোয়েব আলী ও আরেক পাঁড় ভক্ত বুলু চন্দ্র ঘোষের উপরও হামলা করা হয়। এ নিয়েও হামলার শিকার শোয়েব আলী শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয় বিডিক্রিকটাইম-এ।

এ প্রসঙ্গে বিবৃতিতে বলা হয়, ‘দ্বিতীয় বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা ম্যাচে তাদের উচ্ছৃঙ্খলতার মাত্রা ছাড়িয়ে যায় এবং তারা বিভিন্নভাবে মাঠে উপস্থিত বাংলাদেশ সমর্থকদের বিরক্ত করতে থাকে এবং নির্লজ্জভাবে ‘বিয়ার’ও ছুঁড়ে মারে। তবে ম্যাচ শেষে টাইগার শোয়েব আলী বুখারি ও আরেক বাংলাদেশি সমর্থক বুলু চন্দ্র ঘোষ এর গায়ে হাত তোলা আমরা কোনোভাবেই মেনে নিতে পারি না।’

শ্রীলঙ্কার সর্বশেষ বাংলাদেশ সফরের সময় ভিসা জটিলতায় বাংলাদেশে আসতে পারছিলেন না শ্রীলঙ্কান দুই আইকনিক সমর্থক গায়ান সেনানায়েকে ও মোহাম্মদ নিলাম। তখন বাংলাদেশ থেকে সফরের আমন্ত্রণ জানিয়ে বিসিএসএ’র পক্ষ থেকে তাদের ভিসার ব্যবস্থা করা হয়। এই বিষয়টিও উল্লেখ করা হয় রোববার প্রকাশিত বিবৃতিতে।

শ্রীলঙ্কান দর্শক কর্তৃক বাংলাদেশি সমর্থকদের হেনস্থার ঘটনায় দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ডকে অবহিত করা হয়েছে জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আমরা বিষয়টি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটকে জানিয়েছি এবং ফাইনাল ম্যাচে বাংলাদেশের সমর্থকদের সর্বাত্মক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার অনুরোধ জানিয়েছি। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড কর্তৃক শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটকে এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য চিঠি দেওয়া হয়েছে বলে আমাদের জানানো হয়েছে।’

সমর্থকদের জনপ্রিয় সংগঠনটির পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, ‘একটা বিষয় শিক্ষনীয় যে, গুটি কয়েক সমর্থকদের আচরণে কিন্তু পুরো দেশের সমর্থকদের ভাবমূর্তি নষ্ট হতে পারে। আমাদের বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকদের দারুণ সুনাম আছে ক্রিকেট-বিশ্বে। এ সম্মান যেন নষ্ট না হয় সেদিকে আমরা খেয়াল রাখবো এবং ভবিষ্যতে বাংলাদেশে আগত বিদেশি সমর্থকদের সর্বোচ্চ সম্মানটিই জানাবো।’

বিগত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশের প্রতিটি ম্যাচে মাঠে উপস্থিত থেকে সমর্থন জুগিয়ে আসছে দেশের ক্রিকেটের নিখাদ সমর্থকদের নিয়ে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ক্রিকেট সাপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন। এরই ধারাবাহিকতায় নিদাহাস ট্রফিতে টাইগারদের সমর্থন দেওয়ার অভিপ্রায়ে গত ৬ মার্চ শ্রীলঙ্কায় পাড়ি জমান সংগঠনটির ১০ জন সদস্য।

আরও পড়ুনঃ ‘শুরুতে জ্বলে উঠতে হবে তামিমকে’

Related Articles

রুবেল হোসেনের সমস্যা কোথায়?

নিদাহাস ট্রফি থেকে ৪৮২ শতাংশ লাভ!

অসুস্থ রুবেল, দোয়া চাইলেন সবার কাছে

যেখান থেকে শুরু ‘নাগিন ড্যান্স’ উদযাপনের

‘খারাপ করছি দেখেই বেশি চোখে পড়ছে’