২০২৩ বিশ্বকাপেও অংশ নেবে ১০টি দল

0
2114

বিশ্বকাপে একটা সময় ১৪ বা ১৬টি করে দল অংশ নিলেও সেই সংখ্যা এখন কমে হয়েছে ১০। ২০১৯ বিশ্বকাপে প্রথমবারের মত অংশ নেবে মাত্র ১০টি দল। এরপর ২০২৩ বিশ্বকাপেও অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যা একই থাকবে।

সম্প্রতি ২০২৩ বিশ্বকাপ সম্পর্কে বেশ কিছু তথ্য জানায় বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। বিশ্বকাপের আসন্ন আয়োজন অর্থাৎ ১২তম আসরকে (যা অনুষ্ঠিত হবে ইংল্যান্ডে) সামনে রেখে ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে ১৩তম আসরের পরিকল্পনা, ২০২৩ সালে যা অনুষ্ঠিত হবে ভারতে।

Advertisment

১০টি দলের অংশগ্রহণে বিশ্বকাপের মূল ইভেন্ট আয়োজন করায় সমালোচিত হতে হয়েছে আইসিসিকে। সেই সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হয়ে ২০১৯ বিশ্বকাপের পর অংশগ্রহণকারী দল বাড়ানোর ব্যাপারে বিবেচনা করতে পারে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি, এমনটাই ভাবা হচ্ছিল। কিন্তু সংস্থাটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিশ্বকাপের ১৩তম আসরেও অংশ নেওয়া দলের সংখ্যা থাকবে ১০টিই।

তবে পরিবর্তন আসছে অংশগ্রহণকারী দল বাছাইয়ে। বিশ্বকাপের মঞ্চে জায়গা করে নেওয়ার জন্য মোট ৩২টি দল লড়বে নিজেদের মধ্যে। আর এই লড়াই ২০১৯ সালের জুলাই মাসে অর্থাৎ ১২তম বিশ্বকাপের আসরের পর শুরু হয়ে চলবে ১৩তম বিশ্বকাপের আগের বছর তথা ২০২২ সালের মে মাস পর্যন্ত।

এই সময়ে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের আওতায় মাঠে গড়াবে ৩৭২টি ম্যাচ। ৩২ দলের সেরা আটটি দল অংশ নেবে ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগে এবং পরের পাঁচটি দল খেলবে কোয়ালিফায়ারে। এই পদ্ধতিতে আইসিসির সহযোগী দেশগুলোতে একদিনের ক্রিকেটকে আরও জনপ্রিয় করে তোলা সম্ভব হবে বলে মনে করছে আইসিসি।

এ বিষয়ে আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসন বলেন, বাছাইয়ের নতুন এই প্রক্রিয়া দৃশ্যমান হারে ম্যাচের সংখ্যা বৃদ্ধি করবে এবং আমাদের সদস্যদের সুযোগ বাড়িয়ে দিবে। একইসাথে এখন আড়াই বছরেই বাছাই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা সম্ভব হবে, যেখানে আগে ছয় বছর লেগে যেত

আরও পড়ুন: জিম্বাবুয়েকে হালকাভাবে নেওয়ার কিছু নেই : সাকিব